নড়াইলে মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই শুরুতেই বিপত্তি

477

নড়াইলকণ্ঠ ॥ নড়াইল সদর উপজেলায় শনিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) থেকে মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই শুরু হয়েছে, তবে শুরুতেই বিপত্তি। কমিটির ৭সদস্যের মধ্যে ৫জন উপস্থিত না হওয়ায় যাচাই-বাছাই কার্যক্রমে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে। অপরদিকে, অনুপস্থিত ৫সদস্য কমিটির বর্তমান সভাপতির বিরুদ্ধে আপত্তি জানিয়ে তাঁকে বাদ দিয়ে নতুন সভাপতি মনোনয়ন দেওয়ার জন্য মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বরাবর লিখিত আবেদন জানিয়েছেন।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছায়ের লক্ষ্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের গেজেট অধিশাখার উপসচিব মোঃ মাহবুবুর রহমান ফারুকী কর্তৃক গত ১৮ /০১/২০১৭ ইং তারিখে স্বাক্ষরিত পত্রে মোট ৪৭০ টি যাচাই-বাছাই কমিটির অংশ হিসাবে এ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান জিন্নাহকে সভাপতি এবং হাবিবুর রহমান খানকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি সদস্য মনোনীত করে ৭সদস্যের নড়াইল সদর উপজেলামুক্তিযো যাচাই-বাছাই কমিটি গঠন করে প্রেরণ করা হয়। পরবর্তীতে একই ব্যক্তির স্বাক্ষরে গত ০৯/০২/২০১৭ ইং তারিখে ৬১ জেলার ১০৮ টি উপজেলার সংশোধিত কমিটির তালিকায় নড়াইল সদর উপজেলায় এ্যাডঃ ফজলুর রহমান জিন্নার স্থলে হাবিবুর রহমান খানকে সভাপতি ও এ্যাডঃ ফজলুর রহমান জিন্নাহকে (হাবিবুর রহমান খানের স্থলে) মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি সদস্য (অন্যান্য সদস্য পরিবর্তন হয়নি) মনোনীত করে কমিটি গঠন করে জেলা প্রশাসক এবং সদর ইউএনও বরাবর ই-মেইল মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে কমিটির ৫জন সদস্য গতকাল অনুষ্ঠিত যাচাই-বাছাই কার্যক্রমের লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত হননি।
এ ব্যাপারে কমিটির সদস্য সচিব সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ নাছিমা খাতুনকে বার বার মোবাইল ফোনে কথা বলার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। তবে, অফিস সহকারী ইউনুচ জানিয়েছেন, বিষয়টি উর্ধতন কর্তপক্ষকে জানানো হয়েছে। স্যার বলেছেন, পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত কার্যক্রম স্তগিত থাকবে।
কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান খান জানান, আমার বিরুদ্ধে ৫সদস্যের আপত্তিপত্র আমি পড়েছি। কমিটি গঠনের দায়িত্ব মন্ত্রণালয়ের, এখানে কারো কিছু বলার নেই। ইতোপূর্বে গঠিত কমিটিতে আমি মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি সদস্য ছিলাম। তখন ওই ৫সদস্যের কোন আপত্তি ছিল না। সভাপতি হওয়ায় কেন আপত্তি সেটা সাধারণ মুক্তিযোদ্ধগন সহজেই বুঝতে পারছেন। তিনি বলেন, যাচাই-বাছাই কার্যক্রম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী চলবে।