এইচআরডিএফ’র মতবিনিময় ও কর্মশালা সম্পন্ন

110

নড়াইল কণ্ঠ : সাহসের সাথে অবিনয়ের কোন সম্পর্ক নেই, এ জন্য মানবাধিকার কর্মীরা সাহসের সাথে বিনয়ীও হবেন।   মানবাধিকারের কথা তো বলতেই হবে, তা না হলে তো আমি মানব থাকব না। মানবাধিকার রক্ষা আমার জন্মগত দায়িত্ব। মহাত্ম গান্ধী’র জীবনীর কিছু কথা উল্লেখ করে দু’দিনব্যাপি এইচআরডিএফ প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় ও কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক তত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক সুলতানা কামাল এসব কথা বলেন।

রবিবার (২৯ নভেম্বর) দুপুর ২টায় ঢাকাস্থ লালমাটিয়ায় এনজিও ফোরাম ট্রেনিং সেন্টারে আইন ও সালিশ কেন্দ্রের আয়োজনে এ মতবিনিয় ও কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যেও মধ্যে বক্তব্য রাখেন হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার্স ফোরাম এর অন্যতম উদ্যোগক্তা সাতক্ষীরা জেলার এইচআরডিএফ সমন্বয়ক ও স্বদেশ সংগঠনের নির্বাহী পরিচালক মাধব দত্ত, কক্সবাজারের এইচআরডিএফ’র সদস্য অ্যাভোকেট শুকুর, নড়াইল জেলার সদস্য সচিব ও স্বাবলম্বী’র নির্বাহী পরিচারক কাজী হাফিজুর রহমান, বরগুনার সাহাবুদ্দিন পান্না, সোহেলী, নওগাঁ’র ফরিদুর রহমান, আসক’র সহকারী পরিচালক (তদন্ত ইউনিট) মো: টিপু সুলতান, এইআরডিএফ’র সমন্বয়কারী আবু আহমেদ ফয়জুল কবীর ফরিদ প্রমুখ।

এছাড়া কর্মশালায় হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার্স ফোরামের সদস্যদের আন্ত:যোগাযোগ ও সম্পর্কে  উন্নয়ন বিষয় আলোচনা হয়। আলোচনার মধ্যে যে বিষয় সমূহ তুলনামূলক বেশী গুরুত্ব দেয়া হয় তার মধ্যে ছিল তথ্য সংগ্রহ কৌশল, ভয়েস রেইজ ক্যাম্পেইন, বিনয়রে সাথে সাহসীকতা দেখিয়ে মানবাধিকার সংরক্ষনে মানুষের জন্য কাজ করা।

কর্মশালায় সাতক্ষীরা, মেহেরপুর, নড়াইল, রাজশাহী, নওগাঁ, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট ভোলা, পিরোজপুর, বরগুনা, বাগেরহাট, ঝালকাঠী, , দিনাজপুর, কক্সবাজার, পটুয়াখালীসহ ১৬টি জেলার ৩২জন প্রদিনিধি অংশ নেয়।