নড়াইলে আ’লীগ নেতা হত্যার ঘটনায় মামলা ॥ সদরে প্রতিবাদ সমাবেশ

292
SONY DSC

নড়াইলকণ্ঠ ॥ নড়াইল সদর উপজেলার ভদ্রবিলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি প্রভাষ রায় হানু হত্যার ঘটনায় ৯ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাতনামা ৫/৭ জনকে আসামী করে মামলা হয়েছে। শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারী) নিহতের স্ত্রী টুটুল রানী রায় বাদী হয়ে নড়াইল সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন (মামলা নং-০৪)।
এ মামলার এজাহার নামীয় আসামী ভদ্রবিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহীদুর রহমান মিনা, ছেলে আশিক মিনা, ভাইপো রাসেল মিনাসহ ৫জনকে ঘটনার দিন আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ।
আ’ীগ নেতা প্রভাষ রায় হানু গত বুধবার (১ ফেব্রুয়ারী) রাত সাড়ে সাতটার দিকে ভদ্রবিলা মিরাপাড়া বাজারের রাস্তার ওপর দাড়িয়ে কথা বলছিলেন। এসময় ভদ্রবিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহীদুর রহমান মিনার ছেলে আশিক মিনা (২২) অতর্কিতভাবে কাছে গিয়ে পেটে ছুরি ঢুকিয়ে দেয়। এতে হানুর নাড়ি-ভুড়ি বেরিয়ে যায়। নড়াইল সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে ওইদিন রাত সাড়ে ৯টার দিকে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন।
পরের দিন ২ ফেব্রুয়ারী (বৃহস্পতিবার) যশোর মেডিক্যেল কলেজ হাসপাতালে নিহতের ময়নাতদন্ত শেষে বেলা সাড়ে ৩টার দিকে তাকে নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। সেখানে দলীয় নেতাকর্মীরা শ্রদ্ধাঞ্জলি জানানোর পর স্থানীয় শ্মশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।
এদিকে প্রভাষ রায় হানু হত্যার প্রতিবাদে সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারী) বিকালে মিরাপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট অচীন চক্রবর্ত্তীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তৃতা করেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিদ্দিক আহম্মেদ, সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শরীফ হুমায়ুন কবীর, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ওমর ফারুক, জেলা যুবলীগের আহবায়ক বাবুল কুমার সাহা, আ’লীগ নেতা অমিত সাহা রাজা, ফরহাদ হোসেন, আবিদুর রহমান, ভদ্রবিলা ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক খায়রুজ্জামান প্রমুখ।
বক্তারা, প্রভাষ রায়কে হত্যার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানান এবং এজাহারনামীয় আসামীদের গ্রেফতারসহ বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি করেন।
প্রসঙ্গত: নিহত প্রভাষ রায় হানু ভদ্রবিলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী আবিদুর রহমানের পক্ষে কাজ করেন। ওই নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শহীদুর রহমান মিনা জয়লাভ করেন। এরপর থেকে হানুর ওপর নির্বাচিত চেয়ারম্যানের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন।
প্রভাষ রায় হানু ব্যবসায়ীক সুবিধার কারনে নড়াইল শহরে ভওয়াখালী এলাকায় বসবাস করতেন। স্বরস্বতী পূজা উপলক্ষে গ্রামের বাড়িতে গিয়েছিলেন।