বেনাপোলে ভাতিজার ছুরিতে চাচা নিহত

132

বেনাপোল প্রতিনিধি : বেনাপোলে ভাতিজার ছুরির আঘাতে নাসির উদ্দিন (৫০) নামে এক ব্যক্তি নিহত এবং তার ছেলে লিটন হোসেন (৩২) গুরুতর আহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বেনাপোল পোর্ট থানার মানকে উত্তরপাড়া এলাকায়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার ( ২৫ জানুয়ারি) বেলা ১টার দিকে নাসির উদ্দিন মারা যান। আহত লিটনকে হাসপাতালের মডেল ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।
নিহত নাসির উদ্দিনের ভাই আব্দুল আজিজ জানান, মানকে উত্তরপাড়া এলাকার শাহাবুদ্দিনের ছেলে মিলন হোসেনের মেয়ে মিথিলা (৫) এবং লিটনের ছেলে মিশকাত (৫) মঙ্গলবার সন্ধ্যায় খেলা করতে করতে মারামারি করে। এ ঘটনায় মিলন ক্ষিপ্ত হয়ে প্রথমে লিটনের মাকে মারপিট করে। ঠেকাতে এলে সে লিটনকে ছুরি মারে। এ সময় তার বাবা নাসির উদ্দিন এগিয়ে গেলে তাকেও উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে মিলন। ঘটনার পর থেকে মিলন পালিয়ে যায়। মিলন ও লিটন সম্পর্কে চাচাতো ভাই।
তিনি জানান, মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় এক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হলে তিনি তাদের যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেন। রাত ১১টার দিকে আহতদের যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বুধবার বেলা ১টার দিকে নাসির উদ্দিন মারা যান।
হাসপাতালের কর্তব্যরত সিনিয়র নার্স কাকলী বলেন, ‘ডা. অহেদুজ্জামান আজাদ চিকিৎসাধীন নাসির উদ্দিনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।’
তিনি আরো জানান, আহত লিটনের অবস্থাও আশংকাজনক। ২৪ ঘণ্টা পার না হওয়া পর্যন্ত কিছুই বলা যাচ্ছে না বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।
এ ব্যপারে বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি অপুর্ব হাসান বলেন, ‘মানকে উত্তরপাড়া এলাকায় জ্ঞাতি-গোষ্ঠীদের মধ্যে পারিবারিক কলহের কারণে এই ঘটনা ঘটেছে। এরা পরামাণিক গোষ্ঠীর লোক। হাতের কাছে ক্ষুর থাকায় তাই দিয়ে আঘাত করেছে বলে শুনেছি।