বিয়ের পিঁড়িতে তেভেজ

113

ভালোবাসাকে জয় করলেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার কার্লোস তেভেজ। ১৩ বছর বয়সে দেখা হয় ভ্যানেসা মানসিয়ার সঙ্গে। সেই মানসিয়াতে চোখ আটকে যায় কিশোর তেভেজের। ধীরে ধীরে তার মনে স্থান করে নেয় মানসিয়া। বয়স যতো বেড়েছে ততোই দুজনের ভালোবাসা গভীর থেকে গভীর হতে থেকেছে।

আর্জেন্টিনা থেকে তেভেজ পাড়ি জমান ইউরোপে। খেলেন ইংল্যান্ড আর ইতালিতে। ফুটবল জগতে হয়ে ওঠেন উজ্জ্বল তারকা। কিন্তু তার মনের তারা হয়ে থেকে যায় মানসিয়া। এভাবে ১৯টি বছর ভালোবাসার তরী ভাসান যুগল। কিন্তু আর কতো একা থাকা? এবার মনের মানুষটিকে আজীবনের জন্য নিজের করে নিলেন আর্জেন্টাইন ফুটবল তারকা। এখন সুই সুতোর বুননে ভালোবাসার কথা লিখে বেড়াবেন মানিকজোড়া। গেলো বৃহস্পতিবার দুজনই বসেন বিয়ের পিঁড়িতে। এখন থেকে শুধু তারা দুজন দুজনার।

বুয়েনস এইরেসের কাছের শহর সান ইসিদরোতে জাঁকজমকের সঙ্গে বিয়ের কাজ সারেন ৩২ বছরের তেভেজ। অনুষ্ঠানে তিনি পরেন হালকা নীল রঙের স্যুট আর সাদা শার্ট। কনে মানসিয়াও পরেন সাদা পোশাক। বিয়ে শেষে দুজনকেই ফুলেল শুভেচ্ছায় ভাসান অতিথিরা। বিয়ের সময় তেভেজ মানসিয়ার সঙ্গে ছিলেন দু মেয়ে ফ্লোরেনসিয়া কেটি। তাদের আরেক সন্তানের নাম লিটো জুনিয়র।