খুলনায় আগ্রাসী সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িকতা বন্ধে নাগরিকদের করণীয় বিষয়ক পরামর্শ সভা

129

ভালো মানুষদের নিষ্ক্রিয়তায় সন্ত্রাসী ও
সাম্প্রদায়িক শক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে

নড়াইলকণ্ঠ ॥ আগ্রাসী সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িকতা বন্ধে নাগরিকদের করণীয় বিষয়ক পরামর্শ সভায় বক্তারা বলেছেন, ভালো মানুষদের নিষ্ক্রিয় ভূমিকার কারণে সন্ত্রাসী ও সাম্প্রদায়িক শক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে। এখনি সময় এই অপশক্তির বিরুদ্ধে সমাজের সকল অংশের সক্রিয় অংশগ্রহণ। এ জন্যে দরকার পারিবারিক বন্ধনকে মজবুত করা, কিশোর-কিশোরীদের সুস্থ বিনোদন, খেলাধুলা, শিক্ষিত যুবকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা এবং মুক্তিযুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক আদর্শ বাস্তবায়নে রাজনৈতিক দলগুলোর দৃঢ় অঙ্গীকার।
বৃহস্পতিবার (২২ ডিেিসম্বর) নগরীর হোটেল ক্যাসেল সালামে ইউএনডিপি’র সহায়তায় রূপান্তর এ পরামর্শ সভার আয়োজন করে। সুন্দরবন একাডেমির নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সভায় স্বাগত বক্তৃতা করেন স্টপ ভায়োলেন্স কোয়ালিশন-এর মহাসচিব এবং রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক রফিকুল ইসলাম খোকন। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সুকান্ত কুমার সরকার, তথ্য অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ম. জাভেদ ইকবাল ও নারীনেত্রী জাকিয়া আখতার হোসেন। অসীম আনন্দ দাসের উপস্থাপনায় পরামর্শ সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার গুহ।
অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশ নেন খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি শেখ আবু হাসান, ফারুক আহমেদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস এম হাবিব, সাংবাদিক রণজিৎ দেবনাথ রণো, মল্লিক সুধাংশু, সোহরাব হোসেন, মহেন্দ্র নাথ সেন, নাগরিক নেতা মিনা আজিজুর রহমান, শাহীন জামাল পন, এ্যাডভোকেট কুদরত-ই খুদা, উন্নয়ন কর্মী শামীম আরেফিন, জেমস সুকুমার মণ্ডল, কিউ এস ইসলাম মুক্ত, তাসলিমা প্রমূখ।
এসময় বক্তারা আরো বলেন, সম্প্রদায়িকতা এবং সন্ত্রাস মুক্তিযুদ্ধের চেতনার উপর একটি বড় আঘাত। বৈশ্বিকভাবে যে অপশক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে বাংলার মাটিতে তাকে রুখতে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। বিচ্ছিন্নভাবে কাজ করলে এ শক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা সম্ভব হবে না। আগামী প্রজন্মকে নিরাপদ মাতৃভূমি উপহার দিতে এ অপশক্তির বিরুদ্ধে মুক্ত বিবেকসম্পন্ন মানুষকে একযোগে লড়াই করতে হবে।