যশোরে সনাক’র উদ্যোগে বিতর্ক প্রতিযোগিতা

111

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)’র পৃষ্ঠপোষকতায় পরিচালিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), যশোর’র উদ্যোগে যশোর পলিটেকনিট ইন্সটিটিউট অডিটোরিয়ামে ‘দুর্জয় তারুণ্যই দুর্নীতি রুখতে পারে’ শীর্ষক বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন যশোর পলিকেটনিট ইন্সটিটিউট’র উপাধ্যক্ষ আকতারুজ্জামান তালুকদার। মডারেটর ছিলেন সনাক যশোরের সভাপতি এম. আর. খায়রুল উমাম। স্বাগত বক্তব্য দেন সনাক সদস্য এ্যাড: প্রশান্ত দেবনাথ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার এ. এইচ. এম. আনিসুজ্জামান।
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, বৃহস্পতিবার সকাল ১০:৩০ মিনিট অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় বক্তব্য দেন সনাক’র সাবেক সভাপতি প্রফেসর ড. মো: মুস্তাফিজুর রহমান ও সনাক সদস্য এ্যাড: মোয়াজ্জেম হোসেন চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন সনাক সহ-সভাপতি অধ্যাপক সুরাইয়া শরীফ, দৈনিক গ্রামের কাগজের সম্পাদক ও সনাক সদস্য মো: মবিনুল ইসলাম মবিন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাধ্যক্ষ আকতারুজ্জামান তালুকদার বলেন, ‘দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করতে হলে যুব সমাজকেই এগিয়ে আসতে হবে’। বক্তারা বাংলাদেশে দুর্নীতি প্রতিরোধে তরুণ সমাজকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। সকলকে যার যার অবস্থান থেকে দুর্নীতিকে প্রতিহত করার জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হওয়ার অনুরোধ জানান। বক্তারা আরো বলেন, দেশের সার্বিক উন্নয়নে প্রধান বাধা দুর্নীতি এবং এই বাধাকে আমাদের অতিক্রম করতেই হবে। এই বাধা পেরোতে পারলে অচিরেই আমাদের দেশ উন্নয়নশীল দেশ হতে উন্নত দেশে পদার্পণ করবে।
উল্লেখ্য যে, বিতর্ক প্রতিযোগিতায় যশোর পলিটেকনিট ইন্সটিটিউটরে বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে মোট দু’টি দল ক ও খ অংশগ্রহণ করে। এতে ‘দুর্জয় তারুণ্যই দুর্নীতি রুখতে পারে’- বিষয়টির পক্ষে ক দল এবং বিপক্ষে খ দল তাদের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করে। এতে খ দল বিজয়ী হয়। প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ী ও বিজিত দলের সদস্যদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি যশোর পলিকেটনিট ইন্সটিটিউট’র উপাধ্যক্ষ আকতারুজ্জামান তালুকদার। বিতর্ক প্রতিযোগিতায় দু’টি দলের সদস্যরা ছিলেন খ দলে বায়জিদ মাহমুদ দিদার (দলনেতা), তানজিলা খন্দকার ও ফারজানা সুরমা এবং ক দলে সাবিকুন্নাহার তুশি (দলনেতা), মো: ওমর ফারুক ও মো: রাশেদুজ্জামান রাসেদ। বিচারকদের বিচারে খ দলের দলনেতা বায়জিদ মাহমুদ দিদার শ্রেষ্ঠ বিতার্কিক নির্বাচিত হন।