এসএ টিভির সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে এনজেএফ’র মানববন্ধন

103

নড়াইলকণ্ঠ ডেস্ক ॥ এসএ টেলিভিশনের সাংবাদিকদের উপর হামলা ও নির্যাতনের তীব্র নিন্দা জানিয়ে হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে ঢাকাস্থ নোয়াখালী জার্নালিস্ট ফোরাম (এনজেএফ)। বুধবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি পালিত হয়েছে। মানববন্ধন কর্মসূচিতে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে বনখেকো জসিম উদ্দিন ইকবালকে গ্রেফতার ও সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা চাঁদাবাজির মামলা প্রত্যাহারের আল্টিমেটাম দেওয়া হয়।
অন্যথায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও গাজীপুর জেলা প্রশাসনসহ পুলিশ সুপারের কার্যালয় ঘেরাওসহ অবস্থান কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করা হয়। বক্তারা আরও বলেন, গণতান্ত্রিক দেশে হামলা মামলা স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়। এ ঘটনায় প্রশাসনের নীবর ভূমিকার তীব্র নিন্দাও জানান সাংবাদিক নেতারা।
প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধনে এনজেএফ’র সহ-সভাপতি ফিরোজ আলম মিলনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান রুবেলের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও এনজেএফ’র উপদেষ্টা কামরুল ইসলাম চৌধুরী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব ওমর ফারুক, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সভাপতি ও এনজেএফ’র উপদেষ্টা শাহেদ চৌধুরী, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (একাংশ) সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (অপর অংশ) সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, ঢাকা বিভাগ সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আলম হোসেন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতা মাহমুদুর রহমান খোকন, এনজেএফ’র যুগ্ম সম্পাদক মোস্তফা মনোয়ার সূজন, নির্বাহী কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন মজনুসহ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।
প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ করেন, জাতীয় প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, ঢাকা বিভাগ সাংবাদিক ফোরাম, ঢাকা জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, ডিজিটাল নোয়াখালী ডটকম, নোয়াখালী প্রতিদিন, মানুষ মানুষের জন্য, উই ফর ইউসহ বিভিন্ন সাংবাদিক ও সামাজিক সংগঠন।
প্রসঙ্গত; গত ১১ নভেম্বর শুক্রবার দুপুরে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চান্দ্রা নতুন পাড়া এলাকায় খবর সংগ্রহ করার সময় এনজেএফ’র সদস্য এবং এসএ টিভির সাংবাদিক এস ইউ সেলিম ও হেদায়েত উল্যাহ সীমান্তসহ খোঁজ টিমের উপর বনখেকো জসিম উদ্দিন ইকবালের নেতৃত্বে হামলা ও ক্যামেরা ছিনিয়ে নেওয়া হয়। এ ঘটনায় ওইদিন রাতে এসএ টিভির গাজীপুর প্রতিনিধি মোঃ শাজাহান মিয়া বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তবে পুলিশ বনখেকো জসিম উদ্দিন ইকবালের বিরুদ্ধে অর্ধ-শতাধিক মামলাসহ একাধিক গ্রেফতারি পরোয়ানা থাকলেও তাকে গ্রেফতার না করে নির্যাতিত সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে উল্টো মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে।