নির্মাতা খালিদ মাহমুদ মিঠুর দাফন সম্পন্ন

96

নড়াইল কণ্ঠ : বুধবার বাদ আসর বনানী কবরস্থানে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক খালিদ মাহমুদ মিঠুর দাফন সম্পন্ন হলো। এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় তাঁর মরদেহ সাধারণ মানুষের শেষ শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য রাখা হয় জাতীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে। সেখান থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার ছাত্র-শিক্ষকরা তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এফডিসিতে জানাজা শেষে মিঠুর মরদেহ নেওয়া হয় চ্যানেল আইয়ের কার্যালয়ে। সেখান থেকে মিঠুর মরদেহ নেওয়া হয় বনানী কবরস্থানে।
গত ৭ মার্চ ধানমণ্ডিতে একটি কৃষ্ণচূড়া গাছ উপড়ে রিকশার ওপর পড়লে সেখানেই গাছচাপা পড়ে অকাল মৃত্যুবরণ করেন নির্মাতা মিঠু। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই নির্মাতার বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর।
খালিদ মাহমুদ মিঠুর স্ত্রী ও দেশের বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী কনকচাঁপা চাকমা এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘ওনার চাচার কবরের ওপর দাফন করা হয়েছে। আপনারা সবাই দোয়া করবেন, তিনি যেখানেই থাকুন যেন ভালো থাকেন।’
খালিদ মাহমুদ মিঠুর জন্ম ১৯৬০ সালে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের ছাত্র ছিলেন তিনি। নির্মাতা মিঠুর প্রথম চলচ্চিত্র ছিল ‘গহীনে শব্দ’। ২০১০ সালের ২৬ মার্চ মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি। এই ছবির জন্য সেরা পরিচালক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন মিঠু। মিঠু পরিচালিত আরেকটি ছবি ‘জোনাকির আলো’।