গোপালগঞ্জের শিশু অভিজিৎ বাঁচতে চায়

160

গোপালগঞ্জ : শিশু অভিজিৎ পাল বাঁচতে চায়। তার বয়স (৬)। সে সপ্তপল্লী খবির উদ্দিন কিন্ডার গার্ডেনের ১ম শ্রেনীর ছাত্র। গত ১ বছর ধরে সে বিটা থ্যালাসেমিয়া মেজর রোগে আক্রান্ত। তার পিতা অখিল পাল গোপালগঞ্জ শহরের ক্ষুদ্র ব্যাবাসায়ী। মা অর্চণা রানী পাল গৃহিনী। তাদের বাড়ি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বাজুনিয়া গ্রামে। ছেলেকে ঢাকার শিশু রক্তরোগ ও ক্যান্সার রোগ বিশেষজ্ঞ আতিকুর রহমান, শিশু রক্তরোগ, ক্যান্সার, অস্থি মর্জ্জা প্রতিস্থাপন বিশেষজ্ঞ অখিল রঞ্জন বিশ্বাস, প্রফেসর ডা. আতিকুল ইসলাম, ভারতের ব্যাঙ্গালোরের ডা. সুনীল বাটের তত্ত্বধানে চিকিৎসা করিয়েছেন। অস্থি মর্জ্জা প্রতিস্থাপন বিশেষজ্ঞ ডা. সুনীল বাট অস্থি মর্জ্জা প্রতিস্থাপন করা হলেই অভিজিৎ সুস্থ হয়ে উঠবে বলে জানিয়েছেন। আর এতে অন্তত ৪৫ লাখ টাকার প্রয়োজন। ছেলের চিকিৎসায় এ পর্যন্ত অখিলের অন্তত ১০ লক্ষ টাকা ব্যয় হয়েছে। প্রতি মাসে ছেলের শরীরের রক্ত দিতে হচ্ছে। প্রতিদিনই প্রচুর টাকা চিকিৎসার পেছনে ব্যয় করতে হয়। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী পিতা ছেলের চিকিৎসা করাতে নিস্ব ও দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। তার পক্ষে এ ব্যয় ভার বহন করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। সন্তানকে বাঁচাতে পিতা অখিল পাল সমাজের বিত্তবানদের সহায়তা কামনা করেছেন। সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা : অখিল পাল, হিসাব নং-১৯০০১০১৭৬২৩০, পূবালী ব্যাংক লিঃ, গোপালগঞ্জ শাখা, গোপালগঞ্জ, মোবাইল নং ০১৬৭৪০০১৪০৭ ও ০১৭১৪৩৫৫৭৪০।