বাহরাইন দ্বিতীয় দেশ হিসেবে ফাইজারের টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে

5

ডেস্ক রিপোর্ট: লিহান লিমা: শুক্রবার বাহরাইনের জাতীয় স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (এনএইচআরএ) মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট ফাইজার ও তাদের জার্মান অংশীদার বায়োএনটেকের তৈরি করোনার টিকা উচ্চঝুঁকিপূর্ণ রোগীদের ওপর ব্যবহারের অনুমোদন দেয়।

চূড়ান্ত ধাপের পরীক্ষায় ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা ৯৫ শতাংশ কার্যকারী প্রমাণিত হওয়ার পর প্রথম দেশ হিসেবে এই টিকা ব্যবহারের অনুমতি দেয় যুক্তরাজ্য।

করোনার সংক্রমণ রোধে তিন সপ্তাহের ব্যবধানে ফাইজারের টিকার দুটি ডোজ নিতে হবে।

বাহরাইনের জন্য ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা পরিবহন ও বিতরণ বড় চ্যালেঞ্জ হবে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ এই টিকা পরিবহন ও সংরক্ষণ করতে হবে মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায়। যেখানে বাহরাইনের প্রাত্যহিক তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াসের বেশি। টিকার ব্যবহার শুরুর তারিখ এবং কি পরিমাণ টিকা কেনা হয়েছে এ সম্পর্কে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি বাহরাইন ও উৎপাদনকারী সংস্থা।

এর আগে চীনের সিনোফার্মের তৈরির চীনা টিকার জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছিল বাহরাইন। ইতোমধ্যে ৬ হাজার মানুষের ওপর তা ব্যবহারও করা হয়েছে।

১৬ লাখ জনসংখ্যার দেশ বাহরাইনে এ পর্যন্ত ৮৭ হাজারের বেশি করোনা শনাক্ত হয়েছেন। প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ৩৪১ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ৮৫ হাজারের বেশি ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।