কালিয়ায় সাবেক এক চেয়ারম্যানের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

17

নড়াইল কণ্ঠ: নড়াইলে ১২নং চাচুড়ী ইউনিয়নে একাধিকবার নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা লুৎফর রহমান এর উপর পরিকল্পিত হামলার প্রতিবাদে মানব বন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১লা ডিসেম্বর সকাল ১১টায় নড়াইল প্রেসক্লাবের সামনে কালিয়া উপজেলার সর্বস্তরের জনগণ এ মানব বন্ধনটি আয়োজন করেন।

লুৎফর রহমান এর ভাতিজা সোহান মোল্যা বলেন, কাকার জনপ্রিয়তা অনেক বেশী তিনি বর্তমান বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কালিয়া উপজেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি। চেয়ারম্যান মোঃ সিরাজূল ইসলাম (হীরক) কে এলাকার মানুষ আর চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চায়না ভবিষৎ চেয়ারম্যান প্রার্থী বক্কার মোল্যার ছেলে মুকুল মোল্যা(৩০)। হীরক আর মুকুল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগএর মনোনয়ন পাবে না এই ভয়ে দুজন জোটবেধে প্রাক্তন চেয়ারম্যানকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করে। হীরক আর মনোনয়ন পাবে না বুঝতে পেরে মুকুলকে দিয়ে প্রাক্তন চেয়ারম্যানকে হত্যার পরিকল্পনা করে এসব কথা বলেন ভাতিজা সোহান।

গত ২৬ নভেম্বর সকাল ১১টায় নড়াইল পৌরমেয়রের জানাযায় শরীক হওয়ার জন্য তিনি মোটর সাইকেল যোগে নড়াইলে আসার পথিমধ্যে সকাল ৯:২০ মিনিটে পল্লীমঙ্গল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের রাস্তার পাশে পৌছালে কতিপয় সন্ত্রাসী মটর সাইকেল রোধ করে ধারালো অস্ত্রদিয়ে নির্মমভাবে কুপিয়ে মারাতœক যখম করে। বর্বোরচিত হামলাকারীরা হলো রিপন(৩৫) পিং-মান্নান ফকির,সুজন(২৫)পিং-তানজার মোল্যা,মুকুল (৩০)পিং-বক্কার মোল্যা,জুয়েল(২৭) ও পাভেল (২৫) উভয় পিং-হায়াতুর মোল্যা সর্ব সাং বনগ্রাম কালিয়া নড়াইল। সোহান বলেন ঘটনাস্থলে সিরাজুল ইসলাম হীরক উপস্থিত ছিলেন।

এসময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে মেয়ে স্বর্ণা পুত্রবধূ মিলিয়া খানম শিক্ষক আমিনুর ভ’ইয়া ও মেম¦র আসলাম সহ আরো অনেকে এই হামলাকারীদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্ত্রির দাবী করেছেন।