নারায়ণগঞ্জের সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যা মামলার ৮ নম্বর আসামীর জামিন, পরিবারে শংকা

20

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ নারায়ণগঞ্জের বন্দরে চাঞ্চল্যকর সাংবাদিক শেখ ইলিয়াস হত্যা মামলার ৪০দিন পার না হতেই জামিন পেয়েছে ৮ নম্বর এজাহারভুক্ত আসামী মিনা (৫৫)।

সোমবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে ৮ নম্বর আসামী মিনা ও তার ভাই একই মামলার ৭ নম্বর আসামী মিছির আলী নারায়ণগঞ্জের বিজ্ঞ জেলা জজ আনিসুর রহমান এর (বন্দর ঘ অঞ্চল) আদালতে জামিনের আবেদন করলে আদালত মিছিল আলীর জামিন নামঞ্জুর এবং মিনা মিয়ার জামিন মঞ্জুর করেন। এদিকে মিনার জামিন মঞ্জুর হওয়ায় নিহত ইলিয়াসের পরিবারে চরম শংকা বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে বাদীনী জুলেখা বেগম জানান, এমনিতে আমার স্বামীর আরো ৫ আসামী অধরা থেকে আমাদেরকে হুমকি দিচ্ছে তার উপরে আবার ৮ নম্বর আসামীর জামিন হওয়ায় আমরা আরো নিরাপত্তাহীণতার মধ্যে পড়ে গেলাম। আমাদের খুব ভয় হচ্ছে ছোট ছোট ছেলে মেয়ে নিয়ে খুবই চিন্তার মধ্যে আছি। অন্যদিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মূল সাক্ষীদের বাদ দিয়ে নতুন করে সাক্ষীদের নাম সংগ্রহ করছেন এতে করে আমাদের শংকা আরো বেড়ে যাচ্ছে। যারা ঘটনার কিছুই জানে না তাদেরকে সাক্ষী বানালে মামলাটি দুর্বল হয়ে যাবে। সবচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে মামলাটি বন্দর থানা পুলিশের অধীনে ছিলে তাতে আমাদের কোন আপত্তি ছিলনা কিন্তু ডিবি (গোয়েন্দা) পুলিশের কাছে হঠাৎ করে কোন কারণে স্থানান্তর করা হলে তার কোন কারণ খুঁজে পাচ্ছিনা।

সূত্র মতে, গত ১১ নভেম্বর রাতে দৈনিক বিজয় পত্রিকার সাংবাদিক শেখ ইলিয়াস হোসেনকে সংবাদ প্রকাশের জের ধরে ওই এলাকার সন্ত্রাসী তুষার, তুর্য, মাসুদ, হযরত আলী, মিছির আলী, মিনা, সাগর, পাভেল ও রাহাতসহ ১০/১২ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে।

এ ঘটনায় নিহত ইলিয়াসের স্ত্রী বাদী হয়ে ওইদিন রাতেই ৮জনের নাম উল্লেখ করে বন্দর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওইদিন রাতেই স্থানীয় এলাকাবাসী তুষার, মিছির আল ও মিনাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।