নড়াইলে প্রকৌশলীকে দৈহিক নির্যাতন

141

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইল বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্রের সহকারি প্রকৌশলীকে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় দপ্তরে গিয়ে দৈহিক নির্যাতন। সদর থানায় লিখিত এজাহার দাখিলের প্রায় ২৪ঘন্টা অতিবাহিত হলেও সংবাদ লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা এন্ট্রি হয়নি। মামলা এন্ট্রি ও নির্যাতনকারিদের গ্রেপ্তার না করায় ওজোপাডিকো’র শ্রমিক কর্মচারিরা বিক্ষুদ্ধ। যে কোন সময় তারা কর্ম বিরতিসহ আন্দোলনের ডাক দিতে পারে বলে সাংবাদিকদের জানায়।

নড়াইল সদর থানায় দাখিলকৃত এজাহর, ওজোপাডিকোর আবাসিক নির্বাহী প্রকৌশলী সুত্রে জানাযায়, বুধবার ১৮ নভেম্বর বিকাল সোয়া ৫টার দিকে নড়াইল বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্রের দপ্তরের ২য় তলায় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সহকারি প্রকৌশলী মো: কামাল উদ্দিনকে শহরের মহিষখোলা গ্রামের গোলাম রসুলের ছেলে মোস্তাক আহমেদ’ লাবলুসহ কয়েক যুবক দৈহিক নির্যাতন করে। পরে তার ডাক চিৎকারে লোকজন এসে উদ্ধার করে হাসপাতালে এনে প্রাথমিক চিকিৎসার পরে নির্যাতনের শিকার সহকারী প্রকৌশলী মো: কামাল উদ্দিন নিজে বাদি হয়ে লাবলুসহ অপরিচিত ৫-৬ জন আসামি করে সদর থানায় লিখিত এজাহার দেন।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়, লাবলু পুরাতন বাজার এলাকায় অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক ও ইজিভ্যান রিক্সার চার্য দেয়। এই অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার কারনে লাবলু ও ৫-৬ জন দপ্তরে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সহকারি প্রকৌশলী মো: কামাল উদ্দিনকে নির্যাতনে ফোলা রক্তাক্ত জখম করে।

ওজোপাডিকোর আবাসিক নির্বাহী প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) শেখ শফিউল ইসলাম জানান এ ব্যাপারে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা শেখ মতিয়ার রহমান এব্যাপারে একটি লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তির কথা নিশ্চিত করেছেন।