বাল্যবিয়ের দায়ে বর ও কনের পিতার কারাদন্ড

127

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলের লোহাগড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: সেলিম রেজা রাতের আধারে হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেলো স্কুল ছাত্রী রুপালী খানম। এ সময় বাল্যবিয়ে আয়োজন করার দায়ে বর ও কনের পিতাকে ৭ দিন করে কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ইতনা ইউনিয়নের পাংখারচর কাজী পাড়া গ্রামের মোহাম্মদ কাজী’র মেয়ে ও স্বরস্বতী একাডেমীর নবম শ্রেণির ছাত্রী রুপালী খানম (১৪)’র সাথে গোপালগঞ্জ জেলার কাশিপুর উপজেলার ফুকরা গ্রামের মৃত সৈয়দ সরদারের ছেলে তোফাজ্জেল সরদার (৩০)’র মধ্যে আজ বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) রাত ৯টায় বিয়ের দিন ধার্য ছিল। বাল্য বিয়ের খবর পেয়ে রাতেই ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সেলিম রেজা বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে ওই বাল্য বিয়ে পন্ড করে দেন এবং বাল্য বিয়ে আয়োজন করার দায়ে বর তোফাজ্জেল সরদার ও কনের পিতা মোহাম্মদ কাজী (৫০) কে ৭ দিন করে কারাদন্ডের রায় দেন।