আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে নিরাপত্তা বাহিনী হত্যাচেষ্টা রুখে দিয়েছে

4

ডেক্স রিপোটার: আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে হত্যাচেষ্টা রুখে দিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। আর্মেনিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা (এনএসএস) জানিয়েছে, সাবেক কর্মকর্তাদের ক্ষমতা দখলের ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশিয়ানকে হত্যার চেষ্টা বানচাল করা হয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরেই দেশে চাপের মধ্যে রয়েছেন নিকোল পাশিয়ান। মঙ্গলবার থেকেই শতশত বিক্ষোভকারী রাজপথে নেমে পাশিয়ানের পদত্যাগের দাবী করছে। নাগারনো-কারাবাখ অঞ্চলে গত ছয় সপ্তাহের বিরতিহীন যুদ্ধের পর আজারবাইজানের সঙ্গে যুদ্ধ বন্ধের চুক্তি স্বাক্ষর করে আর্মেনিয়া। এই চুক্তিকে দেশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা বলছেন আর্মেনিয়রা।

শনিবার এক বিবৃতিতে এনএসএস বলেছে, ‘এনএসএসএর সাবেক প্রধান আর্তুর ভানেৎসান, রিপাবলিকান পার্টির সাবেক প্রধান ভাহরাম বাগদাসারান এবং যুদ্ধে স্বেচ্ছাসেবী আসোট মিনাসেয়ানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এই সন্দেহভাজনরা প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা করার পরিকল্পনা করেন এবং তার স্থানে কাকে নিয়োগ দেয়া যায় তার সম্ভাব্য পরিকল্পনা সাজান।’

এরআগে গত সপ্তাহে পাশিয়ান হতাশা ব্যক্ত করে বলেন, নাগারনো-কারাবাখ অঞ্চলে আরেকটি এলাকা হাতছাড়া হওয়ার পূর্বে রাশিয়ার মধ্যস্থতায় হওয়া এই চুক্তি স্বাক্ষর করা ছাড়া তার কাছে আর কোনো দ্বিতীয় বিকল্প ছিলো না। তিনি ব্যক্তিগতভাবে এই পিছু হটার দায় নিলেও পদত্যাগ করতে অস্বীকৃতি জানান।

১৯৯০ সাল থেকেই নাগারনো-কারাবাখ অঞ্চলে নিয়ে দুই প্রতিবেশি দেশের মধ্যে বিরোধ চলছে। আন্তর্জাতিকভাবে এটি আজারবাইজানের বলে স্বীকৃত হলেও এই অঞ্চল আর্মেনিয়ার নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠি দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। অঞ্চলটিতে আর্মেনিয়ার সেনাবাহিনী রয়েছে। গত ২৭ সেপ্টেম্বর দুই দেশের মধ্যে নতুন করে অঞ্চলটি নিয়ে যুদ্ধ বেঁধে যায়। এই যুদ্ধ প্রায় ৫ হাজারের মতো প্রাণহানি হয়েছে। নতুন যুদ্ধবিরতি চুক্তির আওতায় এই অঞ্চলে ২ হাজার রাশিয়ার শান্তিরক্ষী বাহিনী অবস্থান করবে।