বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো কামনা

111

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলের লোহাগড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সেলিম রেজা’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেলো মাদ্রাসা ছাত্রী কামনা খানম। এ সময় বাল্য বিয়ের দায়ে বর ও অভিভাবকের ১ মাস করে কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের কামাল শেখের মেয়ে ও স্থানীয় কওমি মাদ্রাসায় কারীয়ানা ছাত্রী কামনা খানম (১৪)’র সাথে উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নে পদ্মপিলা গ্রামের আদম শেখের ছেলে পলাশ শেখ (২০)’র মধ্যে গত সোমবার রাতে বিয়ের দিন ধার্য ছিল। বাল্য বিয়ের খবর পেয়ে ওই দিন রাত ১১টায় ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সেলিম রেজা বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে ওই বাল্য বিয়ে ভেঙ্গে দেন এবং বাল্য বিয়ে আয়োজন করার দায়ে বর পলাশ শেখ ও কনের পিতা কামাল শেখ (৩৫)কে ১ মাস করে কারাদন্ডের রায় দেন।