লাহুড়িয়ায় ১০ শয্যার কল্যাণ হাসপাতাল উদ্বোধন করলেন দুদক কমিশনার

58

নড়াইলকণ্ঠ ॥ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার লাহুড়িয়া গ্রামে হচ্ছে ১০ শয্যার মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র। শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এর ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কমিশনার (তদন্ত) এ, এফ, এম, আমিনুল ইসলাম।
নড়াইল পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ সূত্র জানায়, ১০ শয্যার এ হাসপাতালে তিন তলা হাসপাতাল ভবন ও তিনতলা ডর্মেটারি ভবন হবে। এতে বরাদ্দ হয়েছে ৪ কোটি ৭২ লাখ টাকা। ফরিদপুরের মেসার্স শ্রাবণী কনস্ট্রাকশন এর ঠিকাদার। দেড় বছর মেয়াদ এ হাসপাতারে কাজ শেষ হবে।

উদ্বোধনের সময়ে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা, দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কমিশনার (তদন্ত) এর একান্ত সচিব সৈয়দ রবিউল ইসলাম (উপ-সচিব), দুদক খুলনা বিভাগীয় পরিচালক মো: মঞ্জুর মোর্শেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ রানা, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান হাবিব, দুদক যশোরের উপ-পরিচালক নাজমুচ্ছায়াদাত, সহকারি পরিচালক মাহফুজ ইকবাল, জেলা পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. শামছুল আলম, লোহাগড়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা তানভীর আহমেদ প্লাবন, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী হাফিজুর রহমান, লাহুড়িয়া এস এম এ আহাদ মহাবিদ্যালয়ের সহকারি অধ্যাপক সৈয়দ নজরুল ইসলামসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ সূত্র আরো জানাগেছে, লাহুড়িয়া ১০ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশুদের স্বাস্থ্যসেবার জন্য নির্মিত হচ্ছে এ হাসপাতালটি। একই সাথে থাকবে তিনতলা বিশিষ্ট ছয় ইউনিটের ডরমেটরি ভবন, একটি পাম্প হাউজ, সংযোগ সড়ক, ফার্নিচারসহ অন্যান্য সুবিধা সমূহ।

জানাগেছে, নির্মিত্বব্য হাসপাতালটিতে ১টি আল্ট্রাসনোগ্রাম রুম, ১টি এমআর রুম, ১টি ফার্মেসী ও ঔষধ স্টোর, ১টি ব্রেস্ট ফিডিং রুম, ১টি ডেলিভারি রুম, ১টি আই ইউ ডি রুম, অক্টোক্লেভ রুম, ডাক্তারদের ডিউটি রুম, নার্সদের ডিউটি রুম, পরিবার কল্যান পরিদর্শকদেও ডিউটি রুমসহ অন্যান্য সুবিধা।

এদিকে জেলা পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো: শামসুল আলম জানান, এ হাসপাতাল করতে লাহুড়িয়া গ্রামের কৃষক পরিবারের সন্তান শেখ মনিরুল ইসলাম ৫২ শতাংশ জমি দান করেছেন।