সাকিব দ্বিতীয় টেস্ট থেকেই খেলবে

58

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন করায় সব ধরনের ক্রিকেট থেকে এক বছর নিষিদ্ধ হন সাকিব আল হাসান। অক্টোবরের ২৮ তারিখ নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ উঠে যাবে। বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কার প্রথম টেস্ট শুরু হবে ২৪ অক্টোবর। তাই প্রথম ম্যাচে থাকছেন না এই অলরাউন্ডার, সেটা আগে থেকেই নিশ্চিত ছিল।

কিন্তু সাকিব আদৌ শ্রীলঙ্কা সফরে খেলবেন কিনা, খেললেও কোন ম্যাচে তার সার্ভিস পাবে বাংলাদেশ, এমন অনেক প্রশ্নই ঘুরে ফিরে আসছিল বারবার।

এবার সাকিব ইস্যুতে খুশির খবরই দিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি জানান, শ্রীলঙ্কা সফরের দ্বিতীয় টেস্টেই সাবেক অধিনায়ককে পাচ্ছে বাংলাদেশ। গণমাধ্যমকে পাপন বলেন, ‘দ্বিতীয় টেস্ট থেকেই সে খেলতে পারবে। এ মাসের শেষের দিকে সাকিব দেশে আসবে। অনুশীলনের জন্য সে বিকেএসপিকে বেছে নিয়েছে। দলের সঙ্গে অনুশীলন করতে না পারলেও আমাদের কোনো কোচ আলাদাভাবে ওর সঙ্গে কাজ করতে পারবে।’

দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে পারলেও, ২৮ তারিখের আগে দলের সাথে অনুশীলন বা প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলতে পারবেন না বলেও জানান পাপন, ‘সাকিবের নিষেধাজ্ঞা ২৮ অক্টোবর শেষ। এরপর সে খেলতে পারবে। সমস্যা একটাই, ২৯ অক্টোবরের আগ পর্যন্ত সাকিব দলের সঙ্গে অনুশীলন করতে পারবে না, আমরা সেখানে গিয়ে এইচপির সঙ্গে যে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলব, সেগুলোতেও খেলতে পারবে না। তবে সে এককভাবে অনুশীলন করতে পারবে।’

নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার আগে দলের সাথে যুক্ত না হতে পারলেও কোচরা সাকিবের দেখাশোনা করবে। এ নিয়ে বোর্ড সভাপতি বলেন, ‘শ্রীলঙ্কায় সাকিব দলের সঙ্গে যেতে পারবে না। তবে আমরা চেষ্টা করব ওকে দ্বিতীয় টেস্টের ১০-১২ দিন আগে নিয়ে যেতে। ২৯ তারিখের আগ পর্যন্ত ওখানে আলাদা থেকেই অনুশীলন করল, কিন্তু আমাদের কোচরা তো দেখতে পারবে ওর কী অবস্থা।’