করোনা: দেশে প্লাজমা থেরাপিতে একদিনেই বিস্ময়কর সাফল্য

66

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপি পদ্ধতি প্রয়োগ শুরু হয়েছে। আর তাতে বিস্ময়কর সাফল্য মিলেছে বলে দাবি করেছে পুলিশ হাসপাতাল। সোমবার রাতে গণমাধ্যমকে এমন তথ্যই জানিয়েছেন পুলিশ সুপার ডাক্তার এমদাদুল হক।

তিনি জানান, যেসব রোগীর দেহে প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হয়েছে, তাদের অক্সিজেন গ্রহণের ক্ষমতা একদিনেই ৩০ থেকে ৬০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। তাই এই পদ্ধতিটি নিয়ে আমরা অত্যন্ত আশাবাদী।

রক্তের প্লাজমা ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে সেপারেশন করে নিয়ে আসতে হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, পুলিশ হাসপাতালেই প্লাজমা প্রক্রিয়াকরণের মেশিন বসানোর হচ্ছে। আশা করছি দুই-তিন দিনের মধ্যেই এই কার্যক্রম শেষ হয়ে যাবে। এরপর থেকে পুলিশ হাসপাতালেই রক্ত থেকে প্লাজমা সংগ্রহ শুরু হবে।

উল্লেখ্য, করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা ভাইরাসটিকে মোকাবেলা করতে অ্যান্টিবডি তৈরি করে। এভাবে আক্রান্ত ব্যক্তির প্লাজমায় প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়। পরে তা ভাইরাসটিকে আক্রমণ করে অসুস্থ রোগীদের সুস্থ করে তুলে। এক্ষেত্রে প্রথমে সুস্থ হওয়া ব্যক্তির রক্তের প্লাজমা সংগ্রহ করে ফ্রিজিং করে রাখতে হয়। তারপর যাদের অবস্থা খারাপের দিকে যায় তাদের শরীরে এই প্লাজমা প্রয়োগ করা হয়। এতে আস্তে আস্তে রোগী সুস্থ হয়ে উঠেন।