চিত্রায় তেলের খালি বোতলের রহস্য উদ্ঘাটন, টিসিবি ডিলার গ্রেফতার

49

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলের চিত্রা নদীতে ভাসমান টিসিবির (ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ) সয়াবিন তেলের খালি বোতলের রহস্য অবশেষে উদ্ঘাটন করেছে জেলার গোয়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাধে টিসিবি ডিলার এস এম সামমুজ্জামান খোকনকে (৪৫) ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কমলেশ মজুমদার।

বুধবার (২২ এপ্রিল) সন্ধ্যায় শহরের রূপগঞ্জ এলাকা থেকে ডিলার খোকনকে গ্রেফতারপূর্বক সেই তেল উদ্ধার করা হয়।

এ সময় তিনটি ড্রামে রাখা ৫ হাজার লিটার টিসিবির সয়াবিন তেল ও তেলের খালি বোতল এবং ২৩ হাজার কেজি চিনি জব্দ করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৮ এপ্রিল সন্ধ্যায় নড়াইলের রূপগঞ্জ এলাকায় চিত্রা নদীতে টিসিবির সায়াবিন তেলের শত শত খালি বোতল ভাসতে দেখে স্থানীয় খেয়ামাঝিরা তা উদ্ধার করেন। তবে তাৎক্ষণিক কাউকে শনাক্ত করতে পারেনি প্রশাসন। এরপর মাঠে নামে পুলিশ। অবশেষে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় সয়াবিন তেলের খালি বোতলের রহস্য উদঘাটন হয়।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন জানান,‘জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি), ডিএসবিসহ থানা পুলিশের দিনরাত পরিশ্রমের ফলে চিত্রা নদীতে ভাসমান টিসিবির সেই সয়াবিন তেলের খালি বোতলের রহস্য উদ্ঘাটন করা সম্ভব হয়েছে। ডিলার খোকন টিসিবির সয়াবিন তেল প্রকৃত ভোক্তাদের মাঝে বিক্রি না করে অসৎ উদ্দেশ্যে তেল ড্রামে ঢেলে শতাধিক বোতল চিত্রা নদীতে ফেলে দেয়।

এ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন‘ চিত্রা নদীতে টিসিবির সয়াবিন তেলের খালি বোতল ভেসে উঠার ঘটনায় রহস্য উদ্ঘাটনে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। অবশেষে অপরাধীকে চিহিৃত করে শাস্তির আওতায় আনা সম্ভব হয়েছে। ভবিষ্যতে অন্যরা যাতে এ ধরণের অন্যায় না করে সেদিকে আমরা সর্তক দৃষ্টি রাখছি।’

এদিকে, টিসিবি ডিলার খোকনের পরিবারের দাবি একটি কুচক্রী মহল তাদের বিরূদ্ধে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসিয়ে দিয়েছে।