নড়াইল পৌর মেয়রের অনন্য উদ্যোগ, অস্থায়ী বাজার প্রবেশদ্বারে স্থাপন করলো ২টি জীবাণুনাশক কক্ষ

100

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইল কুড়িডোব মাঠে অস্থায়ী বাজারে ২টি জীবাণুনাশক কক্ষ স্থাপন করেছে নড়াইল পৌর মেয়র।
শুক্রবার (১৭ এপ্রিল)সকাল ১০টায় জীবাণুনাশক কক্ষ ২টি উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা। এই সংকটময় মূহূর্তে মানুষের মধ্যে সামজিক দুরত্ব বজায় রাখতে স্থানীয় প্রশাসন কর্তৃক নড়াইলের রুপগঞ্জ বাজারটি সরিয়ে অস্থায়ীভাবে নড়াইল কুড়িডোব মাঠে স্থানান্তর করা হয়। বিধিমোতাবেক দুরত্ব রেখে দোকানগুলো বসানো হয়েছে। বিশাল বড় এই কুড়িডোব মাঠের উত্তর ও দক্ষিণ পাশে দুটি জীবানূ নাশক কক্ষ স্থাপন করা হয়েছে।মানুষ এই জীবানু নাশক কক্ষের ভিতর ১০ সেকেন্ড সময় দিয়ে বাজারে প্রবেশ করবে এবং বাজার শেষে এই কক্ষের ভিতর দিয়ে বেরিয়ে যাবে। যাতে করে তার শরীরের উপরিভাগে লেগে থাকা জীবানু ধংস হয়।এই নিয়ম মেনে চলতে জনগণকে বাধ্য করার জন্য পৌরসভার একজন প্রতিনিধি সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত কর্মরত থাকবে।
জেলা প্রশাসক বলেন নড়াইল শহরের প্রতিটি আনাচে কানাচে জীবানু নাশক স্প্রে এবং মশা নিধন কর্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন পৌর মেয়র । ইতিমধ্যে সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা’র নির্দেশে নড়াইল সদর ও লোহাগড়া উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে জীবানূু নাশক স্প্রে ছিটানোর কাজ শুরু করেছেন এই পৌর মেয়র ।
জীবানু নাশক কক্ষের সর্বপ্রথম আবিস্কারক ইঞ্জিনিয়ার আরাফাত হোসেন যার ব্যয় ৩৫-৪০হাজার টাকা এবং সর্বপ্রথমেই নড়াইল সদর হাসপাতালের প্রবেশ দ্বারে স্থাপন করা হয়েছে বলে তিনি জানান ।