নড়াইলে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রেস ব্রিফিং

89

নড়াইল কণ্ঠ : ঐতিহাসিক ৭ মার্চ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতী শিশু দিবস উদযাপন উপলক্ষে নড়াইল জেলা প্রশাসনের আয়োজনে প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বলেন ‘মুজিবর্ষে সোনার বাংলা- ছড়ায় নতুন স্বপ্নাবেশ- শিশুর হাসি আনবে বয়ে- আলোর পরিবেশ’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মঙ্গলবার (০৩ মার্চ) সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজী মাহাবুবুর রশীদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: ইয়ারুল ইসলামসহ গণমাধ্যম কর্মীবৃন্দ।

প্রেস ব্রিফিংএ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতী শিশু দিবস ২০২০ এর বিস্তারিত কর্মসূচি উল্লেখ্য করে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক।

এ সময় তিনি ঐতিহাসিক ৭ মার্চের বিস্তারিত কর্মসূচি উপলক্ষে করে জানান, ঔদিন সকাল ৯টায় নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ ক্যাম্পসে ‘সুলতান মঞ্চ’ প্রাঙ্গনে ৩০ ফুট লম্বা বিশিষ্ট বঙ্গবন্ধু টাওয়ার প্রদর্শন, ২৭র্০/৮র্৫ ফুট বিশিষ্ট বাংলাদেশের মানব মানচিত্র প্রদর্শন, ৬র্০/৩৬র্ ফুট বিশিষ্ট জাতীয় পতাকা প্রদর্শন, সহ¯্রকণ্ঠে শুদ্ধসুরে জাতীয় সংগীত পরিবেশন, সহ¯্রকণ্ঠে (মুজিবকোট পরিহিত অবস্থায়) বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ উচ্চারণ, এবং বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত স্থিরচিত্র দ্বারা অনুষ্ঠানস্থল সজ্জিতকরণ করা হবে।

জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতী শিশু দিবসের বিস্তারিত কর্মসূচি উল্লেখ্য করে জানান, এ দিবস উপলক্ষে ১৬ মার্চ নড়াইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে সকাল ৯টায় শিশু শ্রেণি হতে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মাঝে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, সকাল ১০টায় ৩য় শ্রেণি হতে ৯ম শ্রেণি হতে তদুর্দ্ধের শিক্ষার্থীদের মাঝে রচনা প্রতিযোগিতা, সকাল ১১টায় ৩য় শ্রেণি হতে ৯ম শ্রেণি হতে তদুর্দ্ধের শিক্ষার্থীদের মাঝে কবিতা আবৃত্তি এবং বেলা ১২টায় একই বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে উপজেলা পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় ১ম স্থান অধিকারী প্রতিযোগিদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা প্রশসাক ১৭ মার্চের কর্মসূচি সম্পর্কে জানান, ১৭ মার্চ প্রত্যুষে নড়াইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ৩১ বার তোপধ্বণির মাধ্যমে জন্মশতবার্ষিকীর শুভ সূচনা করা হবে। এরপর সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকল সরকারি আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা, সকাল ৮টায় নড়াইলের পুরাতন বাস টার্মিনাল গোলচত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ম্যুরালে পুষ্পমাল্য অপর্ণের মাধ্যমে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন, সকাল ৮টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় প্রাঙ্গণ হতে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু হয়ে পুরাতন বাসটার্মিনাল গোলচত্বর গিয়ে শেষ হবে। এরপর সকাল ৯টায় শিশু সমাবেশ, ১০০ জন শিশু শিল্পীর অংশগ্রহণে শুদ্ধসুরে জাতীয় সংগীত পরিবেশন হবে, শতকণ্ঠে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ পাঠ, ১০০টি বেলুন উড়ানো এবং ১০০টি পায়রা অবমুক্তকরণ করা হবে। এরপর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অপর্ণ করা হবে। পৌনে ৯টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর কেক কাটা, ১০টায় আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ, পুনর্বাসিত অস্বচ্ছল ব্যক্তিদের মধ্যে অনুদান প্রদান, বিভিন্ন মসজিদ, মন্দির, গীর্জায় বিষেশ প্রার্থনা , জেলা সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এ উপলক্ষে আলোচনা, বিভিন্ন বিভিন্ন প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হবে।

এছাড়া বিকাল ৩টায় পুরাতন বাসটার্মিনালে বঙ্গবন্ধু মঞ্চে জাতীয় পর্যায় মুজিবর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সাথে সরাসরি যুক্ত হওয়া, সন্ধ্যা ৬টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, রাত ৮টায় বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ স্টেডিয়ামে আতশবাজি প্রদর্শন করা হবে।