16
All-focus

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলে জনস্বাস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের নিম্নমান সহকারী ও জেলা ভার রক্ষক মো:মহিউদ্দিন মোল্যাকে পিটিয়ে আহত করেছে আনুর মোহাম্মদ ছাত্রলীগ নামধারী এক ঠিকাদার। মারাত্বক আহত ঐ কর্মচারী বর্তমানে নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
অভিযোগে জানা যায়, রবিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাত পৌনে দশটায় অফিসের কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে ভওয়াখালী মনিরুলের বাড়ীর সামনে টেক্সটাইলের উত্তর সীমানা এলাকায় পৌছালে ৪/৫ জন মুখোশধারী সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র ও রামদা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। হামলাকারীরা রড, ক্রিকেট স্ট্যাম্প দিয়ে এলোপাথাড়ি পেটাতে থাকে। এসময় মহিউদ্দিন এর চিৎকারে স্থানীয় লোকজন বের হয়ে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। মার খাওয়া অবস্থায় একজন ঠিকাদারকে চিনে ফেলে সে। পরে পুলিশ ও প্রতিবেশীরা রাত ১১ টার দিকে তাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। আক্রমনকারী ঐ ঠিকাদারের নাম আনুর মোহাম্মদ, সে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের ঠিকাদার ও কালিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। দীর্ঘদিন ধরে তিনি এই জনস্বাস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগে এককভাবে বিভিন্ন কৌশলে অফিস চত্বর ব্যবহার করে যাচ্ছেন। আহত মহিউদ্দিন এর অভিযোগ, ঠিকাদার আনুর মোহাম্মদ অফিস ক্যাম্পাস দখল, নেশা এবং তার ঠিকাদারী মালামাল রাখার কাজে বাধা দেয়ার কারনে তাকে মারপিঠ করা হয়েছে। ২০১৪ সালের জুলাই থেকে আহত মহিউদ্দিন এই অফিসে যোগদানের একমাস পর থেকে জেলা ভার রক্ষক (অতিরিক্ত) হিসেবে দায়িত্ব পান। অভিযুক্ত ঠিকাদার আনুর মোহাম্মদ এ ঘটনায় তাকে জড়ানোর ব্যাপারে অস্বীকার করেন এবং তাকে ফাঁসানোর জন্য ষড়যন্ত্র বলে উল্লেখ্য করেন। এ ঘটনায় প্রকৃত দোষীর শাস্তি হোক, বিভাগীয় ব্যবস্থা এবং আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের পদক্ষেপ নেবার কথা বললেন নড়াইলের জনস্বাস্থ্য ও প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মহঃ সারোয়ার হোসেন।