ট্রাম্প আজ অভিশংসন থেকে অব্যাহতি পাবেন!

46

নড়াইল কণ্ঠ ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে ডোনাল্ড ট্রাম্প তৃতীয় ব্যক্তি যিনি একজন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেশটির নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হয়েছেন। তবে বুধবার (০৫ ফ্রেবুয়ারি) এ বিষয়ে কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে ভোটাভুটি হবে। ধারণা করা হচ্ছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট অভিশংসন থেকে অব্যাহতি পাবেন।
স্থানীয় সময় আজ বিকেল ৪টায় দেশটির সিনেটে আর্টিকেল অব ইমপিচমেন্টের ওপর ভোটাভুটি হবে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দোষী সাব্যস্ত হবেন নাকি রেহাই পাবেন সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে নিজেদের রায় দিবেন সিনেটররা।
মার্কিন গণমাধ্যমগুলো বলছে, সংখ্যাগরিষ্ঠ সিনেটরই রিপাবলিকান। যার ফলে অনায়াসে ট্রাম্প রেহাই পাবেন। যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্টকে সিনেটের বিচারে অভিযুক্ত করে অপসারণ করতে গেলে ৬৭ জন সিনেটরের সমর্থন প্রয়োজন। বর্তমানে ১০০ সিনেটরের মধ্যে ৫৩ জন রিপাবলিকান, ৪৫ জন রয়েছেন ডেমোক্র্যাট, আর ২ জন স্বতন্ত্র। রিপাবলিকানরা শুরু থেকেই ট্রাম্পের সঙ্গে আছেন। যার ফলে তার অভিশংসন থেকে রেহাই পাওয়া প্রায় নিশ্চিত।
এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হয়েছিলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন ও আরেক প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড্রু জনসন। কিন্তু কংগ্রেসের উচ্চকক্ষে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় সিনেটের বিচারে কেউই ক্ষমতা থেকে অপসারিত হননি।
এদিকে, ডেমোক্র্যাটরাও মানছেন যে, প্রেসিডেন্ট অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাচ্ছেন। গতকাল ডেমোক্র্যাটিক সিনেটর জো মানচিন উচ্চকক্ষে দাঁড়িয়ে বলেন, ৬৭ ভোট প্রয়োজন প্রেসিডেন্টকে অপসারণ করার জন্য। কিন্তু সেটা সম্ভব হচ্ছে না। তাই প্রেসিডেন্টকে তার কৃত কার্যকলাপের জন্য সিনেটে তিরষ্কার করা উচিত।
তিরষ্কারের ইঙ্গিত দিয়েছেন রিপাবলিকান সিনেটর লিসা মুরকাওস্কি। তিনি বলেন, সিনেটে তিনি ট্রাম্পকে অভিযুক্ত করে ভোট দিবেন না। তবে সে যে কাজ করেছে তা লজ্জাজনক ও অনৈতিক
প্রসঙ্গত, সাবেক মার্কিন ভাইস-প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে চাপ দিচ্ছিলেন ট্রাম্প। এ সংক্রান্ত একটি ফোনালাপও ফাঁস হয়েছিল। তার পরই নিম্নকক্ষে ট্রাম্পের অভিশংসনের প্রস্তাব পাস হয়।