প্রকৃত অসহায় প্রবীণদের মাঝে মাশরাফী’র কম্বল বিতরণ

11

নড়াইল কণ্ঠ : জাতীয় ক্রিকেট দলের সফল ওয়ানডে অধিনায়ক ও সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার পক্ষ থেকে তার নির্বাচনী এলাকার প্রকৃত হতদরিদ্র অসহায় প্রবীণ শীতার্ত মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে প্রায় দুই হাজার কম্বল পৌঁছায় দেয়া হয়েছে। মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার পরামর্শে তার মনোনীত বিভিন্ন প্রতিনিধিদের মাধ্যমে সরাসরি অসহায় শীতার্ত মানুষের হাতে এসব কম্বল পৌঁছানো হয়।
এ উপলক্ষে গত মঙ্গলবার (০৭ জুয়ারি) মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার টিম তারুণ্য-১০০ এর প্রতিষ্ঠাতা সমাজকর্মী মো: রাসেল বিল্লাহ্’র নেতৃত্বে বাঁশগ্রাম ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে ঘুরে ঘুরে এসব কম্বল প্রকৃত হতদরিদ্র অসহায় প্রবীণ মানুষের হাতে পৌঁছায় দেয়া হয়।
কম্বল পেয়ে গোপালপুরের ৮০ বছরের প্রবীণ নূর মিয়া শেখ ও রওশন শেখ (৬৫) জানান, কোনকালে কেউ এইভাবে আমাদের কাছে আইসে কম্বল দেয় নাই। আমরা এমপি’র জন্য দোয়া করি ওনি যেন সব সময় ভালো থাকেন। এ সময় একই গ্রামের ৯০ বছরের প্রবীণ ময়না বেগম, জোহরা (৭৫) ও ঝর্ণা বেগমের হাতে কম্বল তুলে দেয়ার সময় তারা খুশিতে চোখের পানি ফেলে দেয়।
বগুড়া গ্রামের আমেনা বেগম(৫০), আনোয়ারা(৬০), শুকুরোন নেছা (৬০), হালিমা বেগম(৭৫), সিরাজ মোল্যা(৮০), সামেলা বেগম (৭০), জামেলা বেগম (৯০), বাঁশগ্রামের জয়গুণ বিবি(৮০), নুন নাহার, ও স্বপ্নার হাতে এসব কম্বল তুলে দেয়া হয়।
বাঁশগ্রামের জয়গুণ বিবি (৮০) কম্বল পেয়ে খুশি হয়ে তার বয়ষ্কভাতা কার্ড করতে ৬ হাজার টাকা লেগেছে। এ সম্পর্কে ছেলেবউ স্বপ্না ও নুন নাহার জানান, বগুড়া গ্রামের টিউবওয়েল মিস্ত্রি হাফিজ আমার শাশুড়ির বয়স্কভাতা কার্ড করতে ৬ হাজার টাকা নিয়েছে।
এইভাবে প্রকৃত অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে টিম তারুণ্য-১০০ এর প্রতিষ্ঠাতা সমাজকর্মী মো: রাসেল বিল্লাহ’র নেতৃত্বে এমপি মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার প্রায় দুইশতাধিক কম্বল বিতরণ করা হয়।
কম্বল বিতরণের সময় বি-গোপালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হোসনে আরা, নড়াইল কণ্ঠের বিশ্বজিৎ কবিরাজ, সমিত বিশ্বাস, কানু বিশ্বাসসহ এলাকার মাশরাফীভক্ত তরুণরা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে চন্ডিবরপুর, মাইজপাড়া, হবখালি, আউড়িয়াসহ বিভিন্ন এলাকায় একইভাবে এসব কম্বল শীতার্তদের মাঝে বিতরণ করা হয়।
এছাড়াও ০২ জানুয়ারি নড়াইল জেলা ছাত্রলীগের মাধ্যমে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠির মাঝে ৫০টি কম্বল বিতরণ করা হয়।