জাবির সব হলে তালা, সমাবেশ নিষিদ্ধ, অনড় শিক্ষার্থীরা

13

নড়াইল কণ্ঠ ডেস্ক : জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করে আবাসিক হলগুলো ফাঁকা করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে সব হলের গেটে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে আন্দোলন অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।
গতকাল বুধবার (০৬ নভেম্বর) বিকেলে প্রাধ্যক্ষ কমিটির এক জরুরি বৈঠক শেষে ছাত্রছাত্রীদের ১৬টি হলের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। পাশাপাশি বন্ধ করে দেওয়া হয় ক্যাম্পাসের সব দোকানপাট। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক আবদুস সালাম মিঞাঁ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ক্যাম্পাসে সভা-সমাবেশ বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়।
বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এসব পদক্ষেপের বিষয়ে রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে সংবাদ সম্মেলন করেন আন্দোলনকারীরা। সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা দেওয়া হয়, তারা আন্দোলন অব্যাহত রাখবেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে তারা বিক্ষোভ মিছিল বের করবেন। এর পর সন্ধ্যায় উপাচার্যের বাসভবনের সামনে প্রতিবাদী কনসার্ট করা হবে।
বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি নজির আমিন চৌধুরী বলেন, ‘ফারজানা ইসলামকে (ভিসি) অপসারণের দাবিতে আমাদের কর্মসূচি চলবে। আমরা হল ছাড়ার নির্দেশ মানছি না। রাতে হলে থাকার জন্য আমরা যাব।’
বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের (মার্ক্সবাদী) সভাপতি মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ‘আমরা প্রশাসনের এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছি। এই ভিসি যেহেতু অবৈধ, ফলে তার প্রশাসনের সমস্ত সিদ্ধান্ত অবৈধ। তিনি হল ভ্যাকেন্ট করে সব শিক্ষার্থীকে বের করে দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে নিরাপদে দুর্নীতির স্বর্গরাজ্য প্রতিষ্ঠা করতে চান।’
এদিকে, চলমান এই অচলাবস্থায় ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক সম্মান প্রথম বর্ষের সব ভর্তি কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। কেবল অনলাইনে বিষয়ভিত্তিক পছন্দক্রমের ফরম পূরণ আগের নির্দেশনা অনুযায়ী চলবে।
বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার (শিক্ষা) আবু হাসান স্বাক্ষরিত অন্য একটি বিজ্ঞপ্তিতে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।