বিএনপি ‘আইওয়াশের ব্যবসাটা’ ভালো জানে -প্রধানমন্ত্রী

25

সময় বলে দিবে এ অভিযান আইওয়াশ ছিল নাকি অন্য কিছু। সরকার কিসের জন্য আইওয়াশ করতে যাবে সেই প্রশ্ন রেখে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তারা এটাকে আইওয়াশ হিসেবে বলে যাচ্ছে; অপেক্ষা করেন ও দেখবেন, এটা আইওয়াশ নাকি অন্য কিছু তা দেখতে পাবেন।’
মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) বর্তমান সরকারের চলমান শুদ্ধি অভিযানকে নিছক আইওয়াশ বলায় বিএনপি নেতাদের সমালোচনা করে জোট-নিরপেক্ষ আন্দোলনের (ন্যাম) ১৮তম সম্মেলন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর সদ্য সমাপ্ত আজারবাইজান সফর নিয়ে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, আসল দুর্নীতিবাজ দুজন বিএনপি চেয়াপারসন খালেদা জিয়া ও তার ছেলে সাজা পেয়েছেন।
বিএনপির অনেক পাতি নেতা আছেন যারা মূলত দুর্নীতিবাজ, আগুন দেয়া, মানুষ হত্যা ও আরও অনেক অপরাধের সাথে জড়িত উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন ‘আসল দুর্নীতিবাজদের মধ্যে তারা দুজন (খালেদা ও তার ছেলে তারেক) এরই মধ্যে সাজা পেয়েছেন।’
‘বিএনপির আরও নেতা আছেন, যারা অপরাধী, পর্যায়ক্রমে সবাই শাস্তি পাবেন।…আপনাদের তা দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। তাদের অবশ্যই এটি (শাস্তি) পেতে হবে। এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই,’ বলেন তিনি।
তিনি বলেন, ‘চলমান শুদ্ধি অভিযানে আমি তো আমার আপন পর কোনো কিছু দেখিনি। অপরাধ জগতের সঙ্গে যারা জড়িত সে যে-ই হোক, তাকে ধরা হচ্ছে।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি ‘আইওয়াশের ব্যবসাটা’ ভালো জানে। কেননা তারাই দুর্নীতিকে মূলনীতি বানিয়ে দেশকে দুর্নীতিতে ডুবিয়ে দিয়েছিল।
অন্য এক প্রশ্নের জবাবে, বিএনপিকে দুর্নীতির খনি আখ্যা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাদের মুখে এতো কথা কোত্থেকে আসে?
আরেক প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দুর্নীতিবিরোধী এ অভিযানে রাজনীতিবিদের বাইরেও অন্য ক্ষেত্রের দুর্নীতিবাজদের ধরা হবে কি না বিষয়টি সময় বলে দেবে।
তিনি বলেন, সরকার কোনো বাছাইয়ের মাধ্যমে অপরাধীদের গ্রেপ্তার করছে না, বরং যারা জালিয়াতির সাথে জড়িত তাদেরই ধরা হচ্ছে। ‘অপরাধীরা অপরাধী। তাদের কোনো দল নেই… অন্য কোনো কিছু নেই। যে অপরাধ করবে তাকে ধরা পড়তে হবে।