ঢাকায় দুই বাংলার তারকামেলা

11

‘ভারত বাংলাদেশ ফিল্মস অ্যাওয়ার্ড’ (বিবিএফএ) অনুষ্ঠানের জমকালো আয়োজনে ঢাকায় বসেছে দুই বাংলার তারকাদের মিলনমেলা।
সোমবার (২১ অক্টোবর) রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরার (আইসিসিবি) নবরাত্রি হলে আয়োজিত জাঁকালো এ আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, দেশের বৃহৎ শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক ও নিউজ টোয়েন্টিফোরের সিইও নঈম নিজাম, দৈনিক কালের কণ্ঠের সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, গান বাংলা টেলিভিশনের ভাইস চেয়ারম্যান ও টিএম ফিল্মসের চেয়ারম্যান ফারজানা মুন্নি, এটিএন বাংলা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান, চিত্রনায়ক আলমগীর, চিত্রনায়িকা সারাহ বেগম কবরী প্রমুখ।
বিবিএফএ’তে উপস্থিত সম্মানিত অতিথিরা
অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ও বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান পশ্চিমবঙ্গের পর্যটন মন্ত্রী, অভিনেতা, লেখক ও নির্মাতা ব্রাত্য বসুর হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন।
দুই বাংলার চলচ্চিত্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জাঁকজমকপূর্ণ অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠান বিবিএফএ। বাংলার চলচ্চিত্রজগতকে অনন্য প্রেরণায় উৎসাহিত করা এবং বিশ্বদরবারে একে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে এ আয়োজনের উদ্যোগ নেয় বাংলাদেশের বসুন্ধরা গ্রুপ ও ভারতের ফিল্ম ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বিবিএফএ’র আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, রাজনৈতিক সীমারেখা দুই বাংলার অভিন্ন ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে বিভাজন করতে পারে না। আমাদের ভাষা ও সংস্কৃতি এক। কিন্তু আমাদের সাংস্কৃতিক মেলবন্ধনের একটু অভাব ছিল। এই আয়োজনের মাধ্যমে আমাদের সংস্কৃতি চর্চা উৎসাহিত হবে। চলচ্চিত্র মানুষের মননের বিকাশ করে। যারা রাষ্ট্র পরিচালনা করেন, তাদেরও প্রেরণা দিতে পারে চলচ্চিত্র। আমি এই আয়োজনের সাফল্য কামনা করছি।
সম্মাননা ক্রেস্ট গ্রহণ করছেন দৈনিক কালের কণ্ঠের সম্পাদক ও সাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন
বিবিএফএ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দুই তারকার সব উজ্জ্বল তারকারা।
প্রথম বিবিএফএ আয়োজনে বাংলাদেশি তারকাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা ওমর সানী, সিয়াম আহমেদ, নিরব হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মামনুন ইমন, অভিনেত্রী মৌসুমী, জয়া আহসান, বিদ্যা সিনহা মিম, নুসরাত ফারিয়া, পরীমনি ও পূজা চেরিসহ অনেকে।
ভারতের বাংলা সিনেমার তারকাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, জিৎ, আবির চ্যাটার্জি, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা ঘোষ, তনুশ্রী, পাওলি দাম, নির্মাতা গৌতম ঘোষ, সৃজিত মুখার্জি প্রমুখ।
এতোদিন হলিউড, বলিউড ও দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমায় এমন আড়ম্বরপূর্ণ অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান দেখা গেলেও বাংলা সিনেমার ইতিহাসে এতো বড় আয়োজন এই প্রথম।