গোপালগঞ্জে ইডিসিএল’র প্রজেক্টের শ্রমিকদের বিক্ষোভ

24

নড়াইল কণ্ঠ : গোপালগঞ্জ এসেনসিয়াল ড্রাগস কোম্পানী লিমিটেডের থার্ড প্লান্ট প্রজেক্টের ওয়্যার হাউজে সিবিএ’র আঞ্চলিক অফিস হিসেবে ব্যবহৃত একটি কক্ষে তালা লাগিয়ে দেওয়ায় প্রতিবাদে কর্র্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে শ্রমিকরা। এ সময় তারা বঙ্গবন্ধুর একটি ছবি ভাংচুরের অভিযোগ করে। বৃহস্পতিবার বিকেলে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোনাপাড়ায় ইডিসিএল-এর থার্ড প্লান্ট প্রজেক্টে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।
ইডিসিএল-র সিবিএ নেতা কাজী ইউসুফ বলেন, গত এক বছর ধরে তারা ওয়্যার হাউজের ওই কক্ষটি শ্রমিকলীগ বি-২১৮৯ এর আঞ্চলিক অফিস হিসেবে ব্যবহার করে আসছিল। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে আকস্মিক ভাবে কক্ষটিতে তালা লাগিয়ে দেয় কতৃপক্ষ। এছাড়া সিবিএ-র আঞ্চলিক অফিস হিসেবে ব্যবহৃত ওই কক্ষের দেওয়ালে টাঙ্গানো জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের একটি ছবি ভাংচুরের অভিযোগ করেন কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। এ সময় তিনি বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুরের সাথে জড়িত কর্মকর্তাদের বিচার দাবী করেন।
এ ব্যাপারে ইডিসিএল-এর থার্ড প্লান্ট প্রজেক্টের সাইট ইনচার্জ ও ডেপুটি ম্যানেজার মাফিজুর রহমান শেখ বলেন, একটি শ্রমিক সংগঠন প্লান্টের ওয়্যার হাউজের একটি কক্ষ দখল করে তাদের অফিস হিসেবে ব্যবহার করে আসছিল। প্লান্টটি আগামী ডিসেম্বরে উৎপাদনে যাওয়ার কথা রযেছে। এটা প্রধানন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রজেক্ট। ওয়্যার হাউজে আমরা প্রজেক্টের মালামাল রেখেছি। এছাড়া আঞ্চলিক পর্যায়ে সিবিএ-র কোন অফিস থাকার কোন অনুমোদন নেই। তিনি বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাঙচুরের বিষয়টি অস্বীকার করেন।
এ ব্যাপারে কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক এহসানুল কবির জগলুল বলেন, বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুরের ঘটনা তদন্তে ৩ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তে যারা দোষী সাব্যস্ত হবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে জগলুলের ধারণা, কর্মকর্তারা এ ঘটনা ঘটায়নি।