সম্রাট ও আরমানের ৬ মাস কারাদন্ড, তল্লাশী চালিয়ে অস্ত্র, মাদক ও বন্যপ্রাণির চামড়া উদ্ধার

4

যুবলীগের সদ্য বহিষ্কৃত ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে ৬ মাস করে কারাদন্ড দিয়েছে র‌্যাবের পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালত।
ভ্রাম্যমান আদালতের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট মো: সারোয়ার আলম বন্যপ্রণী সংরক্ষণ আইনে সম্রাটকে ৬ মাস ও মাদকদ্রব্য আইনে আরমানকে ৬ মাস কারাদন্ড প্রদান করেছেন।
কুমিল্লা থেকে আটকের পর আজ রোববার দুপুরে সম্রাটকে সঙ্গে নিয়ে র‌্যাবের একটি দল রাজধানীর কাকরাইলের কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে একটি পিস্তল, ম্যাগজিন, পাঁচ রাউন্ড গুলি, ১১শ’ ৬০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ১৯ বোতল বিদেশী মদ, দুটি ক্যাঙ্গারুর চামড়া ও দুটি ইলেকট্রিক শক দেয়ার মেশিন উদ্ধার করে।
র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লে. কর্ণেল সারোয়ার-বিন-কাশেম ঘটনাস্থলে এক সংক্ষিপ্ত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, আটক ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের কার্যালয়ে তল্লাশী চালিয়ে অস্ত্র, মাদক ও বন্য প্রাণীর চামড়া উদ্ধার করা হয়েছে। বন্যপ্রাণীর চামড়া সংরক্ষণে রাখায় সম্রাটকে র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত ৬ মাসের কারাদন্ড দিয়েছে। এর আগে কুমিল্লায় তার সহযোগী আরমানকে মাদক সেবনের দায়ে ৬ মাসের কারাদন্ড দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
তিনি বলেন, অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য উদ্ধারের ঘটনায় সম্রাটের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হবে। তার বিরুদ্ধে ক্যাসিনো ব্যবসার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে। তার মাধ্যমে মানি লন্ডারিং হয়েছে কিনা সেটি তদন্তের পর জানা যাবে। মামলা দায়েরের পর রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে।
সারোয়ার-বিন-কাশেম বলেন, সম্রাটের কার্যালয়ের পাশাপাশি রাজধানীতে আরো তিনটি বাসায় অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। এর মধ্যে সম্রাটের ভাই বাদলের শান্তিনগরের বাসা, তার দ্বিতীয় স্ত্রী শারমিন চৌধুরীর মহাখালীর বাসা ও আরমানের মিরপুরের বাসায় তল্লাশী চালানো হয়।
রোববার দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি দল কাকরাইলে ভূইয়া ট্রেড সেন্টারে তালা ভেঙে সম্রাটের কার্যালয়ে প্রবেশ করে অভিযান শুরু করে। সন্ধ্যা সোয়া ৬টা পর্যন্ত অভিযান চলে।
এর আগে ভোর ৫টার দিকে কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জুশ্রীপুর গ্রাম থেকে স¤্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে আটক করে র‌্যাব।
এদিকে যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জানা গেছে।