নড়াইলের লোহাগড়া পিআইও’র বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

27

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার অফিস সহকারীকে অশালিন ভাষায় গালমন্দসহ ব্যক্তিগত কাজ করতে বাধ্য করায় উপজেলা সরকারি কর্মচারী সমন্বয় পরিষদ ‘সরকারি কর্মচারী আচরণ বিধিমালা’ ভংঙ্গের অভিযোগ এনে পিআইও এর শাস্তিমূলক বদলির দাবীতে বিভিন্ন দফতরে অভিযোগ করেছেন। অভিযুক্ত ওই কর্মকর্তা হলেন, লোহাগড়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) এসএমএ করিম। এঘটনাকে কেন্দ্র করে লোহাগড়া উপজেলায় অফিসারদের সঙ্গে সরকারি কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে। অনুসন্ধানে জানা গেছে, লোহাগড়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এসএমএ করিম প্রতিনিয়ত ওই দফতরের অফিস সহকারী জিয়াউর রহমানকে দিয়ে তার ব্যক্তিগত কাজ করাতে বাধ্য করেন। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কথায় কথায় অশালীন ভাষায় গালমন্দ করেন। এমনকি ‘কুত্তার বাচ্চা’ বলেও গালি দিয়ে থাকেন বলে তাদের অভিযোগ। অপরদিকে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এসএমএ করিম নিয়মিত অফিস করেন না। ফলে অফিসিয়াল অনেক জরুরী কাজ ফাইলে জমা পড়ে থাকে। যে সব কাজে তিনি অনৈতিক সুবিধা পান সেইসব কাজ নিয়েই ব্যস্ত থাকেন বলেও তাদের অভিযোগ।
এ ঘটনায় গত রবিবার উপজেলা সরকারি কর্মচারী সমন্বয় পরিষদ এক জরুরী সভায় তাঁর অধিনস্ত ওই কর্মচারী জিয়াউর রহমানের সঙ্গে অশালীন ভাষায় গালমন্দ করার কারণে পিআইও এসএমএ করিমকে লোহাগড়া উপজেলা থেকে প্রত্যাহার করে নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের বরাবর অভিযোগ করেন। এছাড়া তাদের সভার সিদ্ধান্তের কার্যবিবরণীর অনুলিপি সংযুক্ত করে অভিযোগ পত্রের সঙ্গে প্রেরণ করা হয়। তারা অবিলম্বে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এসএমএ করিমকে শাস্তিমূলক বদলীর দাবি জানান। এ বিষয়ে ন্যায় বিচার না পেলে আগামীকাল ২৩ সেপ্টেম্বর লাগাতার কর্মবিরতি পালন, পিআইওকে অবাঞ্চিত ঘোষনা, মানববন্ধনসহ কঠিন কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে বলে তারা হুমকি প্রদান করেন। তাদের ওই সভায় উপজেলার ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর ৫৩জন কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।
এ ছাড়া পিআইও করিমের অনৈতিক আচারণ, টিআর কাবিখা ও ৪০ দিনের কর্মসৃজন প্রকল্প থেকে টাকা নেয়া,মানসিকভাবে অসুস্থ্য থাকা,সাধারণ মানুষের সঙ্গে খারাপ আচারণের অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান ও স্থানীয় এমপিসহ সরকারী বিভিন্ন দফতরে অভিযোগ পত্র প্রেরণ করেন। এ প্রসঙ্গে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এসএমএ করিম শনিবার দুপুরে প্রতিনিধিকে বলেন,‘কিছু অসৎ লোক তাদের ব্যক্তিস্বার্থে এবং ষড়যন্ত্রমূলকভাবে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছেন। আদৌ ওই সমস্ত অভিযোগ সত্য নহে।’