কালিয়ায় বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী এ্যানি, বরসহ ১৫দিনের কারাদন্ড ৩

31

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলের কালিয়ায় এ্যানি নামে এক স্কুলছাত্রী স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ের অভিশাপ থেকে রক্ষা পেয়েছে। বাল্যবিয়ের আসর থেকে বরসহ তিন জনকে আটকের পর ভ্রাম্যমান আদালত ১৫দিন করে কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন।সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার সহকারি কমিশনারের (ভূমি) ভ্রাম্যমান আদালত বাল্যবিয়ে সম্পন্ন করার চেষ্টার অপরাধে তাদেরকে ওই দন্ডাদেশ দেন।
পুলিশ ও ভ্রাম্যমান আদালত সুত্রে জানা যায়, উপজেলার চাচুড়ী পুরুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী ও কদমতলা গ্রামের সাহেব আলী শেখের মেয়ে এ্যানি খাতুনের (১৫) সঙ্গে একই উপজেলার দেওয়াডাঙ্গা গ্রামের আলী আকবর শেখের ছেলে মো.রাসেল শেখের (২৫) বিয়ের দিন ধার্য্য ছিল সোমবার। নির্ধারিত সময় অনুযায়ী বর ও তার স্বজনরা বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে কনের বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার সময় কালিয়ার সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো.নাজিবুল আলমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ওই দিন বিকাল ৪টার দিকে তাদের বিয়ের আসরে অভিযান চালিয়ে বর মো.রাসেল শেখ, তার নিকট আত্মীয় একই গ্রামের মৃত কওছার গাজীর ছেলে তৈয়েবুর রহমান গাজী (৪০) ও কনের চাচা কদমতলা গ্রামের মো.সেলিম শেখকে (৪৫) আটক করে। পরে ভ্রাম্যমান আদালত তাদের প্রত্যেককে ১৫দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন। ওইদিন সন্ধ্যা ৬টার দিকে সাজাপ্রাপ্তদেরকে পুলিশে সপর্দ করা হয়। কালিয়া থানার ওসি মো.রফিকুল ইসলাম বলেন,‘সাজাপ্রাপ্তদেরকে সোমবার রাতেই নড়াইল জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।’