গোপালগঞ্জের শুকতাইল ইউপি নির্বাচন মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থী

144

এম শিমুল খান, গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জে আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে ঘিরে জোরালো ভাবে জনসংযোগ ও মনোনয়ন দৌড়ে নেমে পড়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। এছাড়াও রয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থীও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তপশীল ঘোষনার সাথে সাথে এ সব প্রার্থীরা ভোটের মাঠে সক্রিয় হয়ে উঠেছেন। ইতি মধ্যে অনেক সম্ভাব্য প্রার্থীরা পোস্টার, লিফলেট ছেপে ও ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে এবং বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠান ও সমাবেশে যোগ দিয়ে তাদের প্রার্থীতার পক্ষে জনসমর্থন আদায়ে ব্যস্ত রয়েছেন। এ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেতে নিজেদের সাংগঠনিক ভীত, যোগ্যতা ও জনপ্রিয়তা প্রমাণে ব্যাপক ভাবে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন। সম্ভ্যাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা আলাদা আলাদা ভাবে মনোনয়ন পাওয়ার জন্য ইউনিয়ন আ’লীগ, উপজেলা আ’লীগ, জেলা আ’লীগ, স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ কেউ কেউ আবার কেন্দ্রীয় নেতাদের দ্বারস্থ হচ্ছেন চালিয়ে যাচ্ছেন গ্রুপিং লবিং। তারা ভোটারদের কাছে দোয়া ও আশির্বাদ কামনা করছেন। শুকতাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দুর্গ হওয়ায় এখানে দলীয় প্রার্থীর সংখ্যা কম নয়। শুকতাইল ইউনিয়নে সম্ভাব্য প্রার্থীরা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও গোপালগঞ্জ-২ আসনের বারবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের আর্শীবাদ পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। দলের এ সব নেতারা প্রত্যেকে দলীয় মনোনয়নে প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করতে আগ্রহী। তবে দলীয় মনোনয়ন না পেলে কেউ কেউ আবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন বলে শোনা যাচ্ছে। জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, কে দলীয় মনোনয়ন পাবেন তা বলা মুশকিল। সব কিছু নির্ভর করছে আমাদের প্রাণ প্রিয় নেতা শেখ সেলিম ভাইয়ের উপর। সরেজমিন শুকতাইল ইউনিয়নের সম্ভাব্য বিভিন্ন চেয়ারম্যান প্রার্থীদের সাথে কথা হলে তারা তাদের বক্তব্য বিভিন্ন ভাবে তুলে ধরেন।NK_Feb_2016_083শুকতাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থী, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান শেখ মো: আবিদ আলী বলেন, দলীয় মনোনয়ন পাবার ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী। আমি দীর্ঘ দিন যাবত আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। মুক্তিযুদ্ধের সময় আমাদের বাড়ীঘর খান সেনারা পুড়িয়ে দিয়েছিল। আমি জন্মগত ভাবে যেহেতু আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান সে কারনেই আমি দলীয় মনোনয়ন পাব এটা আমার বিশ্বাস ও আশা। আমি এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসাবে পুনরায় নির্বাচিত হতে পারলে আমি আমার ইউনিয়নকে ডিজিটাল ও আধুনিক ইউনিয়ন হিসাবে গড়ে তুলবো। বিগত দিনে আমি আমার ইউনিয়নের যে সকল উন্নয়ন করেছি তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। আমার ইউনিয়নের প্রতিটি ঘরে বিদ্যুত সংযোগ দেওয়া হয়েছে। আমি আমার ইউনিয়নের অসম্পুর্ন কাজ গুলি সম্পুর্ন করার জন্য ইউনিয়নের সাধারন জনগনের কাছে আর একবার ভোট প্রার্থনা করছি। জনগন যদি ইউনিয়নের উন্নয়ন চায় তবে যেন তারা আমাকে আর একটিবার তাদের ভোটের মাধ্যমে আমাকে সুযোগ করে দেয়। আমি ইতিমধ্যে ইউনিয়ন ভবন নির্মানের জন্য জায়গা নির্ধারন করে রেখেছি। সেখানে একটি আধুনিক ও ডিজিটাল মানের ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স নির্মান করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার জন্য আমার পক্ষ থেকে কোন কমতি থাকবে না। আমি জনগনের জন্য জীবন বাজি রেখে কাজ করে যেতে চাই। আমি ইউনিয়নের সাধারন মানুষকে শীতবস্ত্র বিতরন করেছি এছাড়াও আমি সাধারন মানুষকে আর্থিক সাহায্য সহ নানা রকমের সাহায্য সহযোগিতা করে আসছি। আমি শতভাগ আশাবাদী দলীয় মনোনয়ন পাবো। তার পরও যদি আমি দলীয় মনোনয়ন না পাই দল যদি অন্য কাউকে দলীয় মনোনয়ন দেয় আমি দলের সে সিদ্ধান্ত মাথা পেতে নিব। আমি দলের হয়ে তার পক্ষে কাজ করবো।NK_Feb_2016_086 শুকতাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থী ইকবাল ফকির তনু বলেন, আমি ছাত্রলীগ করেছি। সে কারনেই আমি দলীয় মনোনয়ন পাব সে ব্যাপারে শতভাগ আশা বাদী।  আমি এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হতে পারলে আমি গরীব-দু:খি, অসহায় ও নির্যাতিত মানুষের সেবা করে যাব। এলাকার মানুষের চাওয়া-পাওয়াকে আমি প্রাধান্য দেব কোন ভাবেই তাদের বঞ্চিত করবো না। প্রয়োজনে আমার নিজস্ব অর্থায়নে তাদের সাহায্য সহযোগিতা করবো। আমার ইউনিয়নকে আমি ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসাবে রুপদান করবো। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ যাতে আরো বেশি সু-সংগঠিত হতে পারে সে জন্য কাজ করে যাব। আমি আমার প্রানপ্রিয় নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিম ভাইয়ের দোয়া ও আর্শীবাদ নিয়ে আগামীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবো। আমি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশ নিব। NK_Feb_2016_085শুকতাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থী, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো: শহিদুল ইসলাম মোল্লা বলেন, দলীয় মনোনয়ন পাবার ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী। কারন আমি আওয়ামীলীগ দলের হয়ে দীর্ঘ দিন যাবত দলের কাজ করছি। সে কারনেই আমার বিশ্বাস আমি দলীয় মনোনয়ন পাব। আমি চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হতে পারলে আমার সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম ভাই ও আমাদের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ব্যাপারে আমার ইউনিয়নের পক্ষ থেকে সব রকমের ব্যবস্থা গ্রহন করবো। আমার ইউনিয়নে কৃষি, শিক্ষা, চিকিৎসা ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে নিরলশ ভাবে কাজ করে যাব। আমি ইউনিয়ন বাসীর সুখে দু:খে ছিলাম আছি এবং আগামীতেও থাকবো। তবে দল যদি কাউকে দলীয় মনোনয়ন দেয় তবে আমি দলের হয়ে তার পক্ষে নির্বাচন করবো। শুকতাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থী মো: ইবরাহিম খলীল বলেন, আমি দলীয় পাবার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। আমি আওয়ামীলীগ পরিবারের সNK_Feb_2016_087ন্তান সে কারনে আমি দলীয় মনোনয়ন পাব এটা আমার আশা। আমি পুর্বে জনগনের পাশে ছিলাম এখনো আছি এবং ভবিষতেও থাকবো। আমি নির্বাচিত হতে পারলে জনগনকে ভালবেসে তাদের কল্যানে ও ইউনিয়নকে ডিজিটাল ইউনিয়ন তৈরী করতে কাজ করে যাব। আমার ইউনিয়নে কৃষি, শিক্ষা, চিকিৎসা ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে নিরলশ ভাবে কাজ করে যাব। আমার ইউনিয়নকে আমি মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত করবো এটা আমার অঙ্গিকার। আমি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশ নিব।NK_Feb_2016_084শুকতাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থী, সাবেক ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো: রেজাউল হক তানু বলেন, আমি দলীয় পাবার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। আমি চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হতে পারলে আমার সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম ভাই ও আমাদের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ব্যাপারে আমার ইউনিয়নের পক্ষ থেকে সব রকমের ব্যবস্থা গ্রহন করবো। আমার ইউনিয়নে কৃষি, শিক্ষা, চিকিৎসা ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে নিরলশ ভাবে কাজ করে যাব। আমার ইউনিয়নকে আমি মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত করবো এটা আমার অঙ্গিকার। আমি আমার ইউনিয়নকে অসাম্প্রদায়িক সমাজ গঠনে মানবিক মুল্যেবোধের উপর কাজ করতে চাই। আমি ইউনিয়ন বাসীর সুখে দু:খে ছিলাম আছি এবং আগামীতেও থাকবো। আমি দলীয় মনোনয়ন না পাই দল যদি অন্য কাউকে দলীয় মনোনয়ন দেয় আমি দলের সে সিদ্ধান্ত মাথা পেতে নিব। আমি দলের হয়ে তার পক্ষে কাজ করবো। শুকতাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থী ও সমাজ সেবক এখলাছুর রহমান নান্নু বলেন, আমি দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। আমি এ NK_Feb_2016_089ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হতে পারলে আমার ইউনিয়নের রাস্তাঘাট নির্মান, ব্রিজ-কালভাট নির্মান, নতুন স্কুল নির্মান, খাল খননসহ বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক কাজ করবো। আমি নির্বাচিত হতে পারলে জনগনকে ভালবেসে তাদের কল্যানে ও ইউনিয়নকে ডিজিটাল ইউনিয়ন তৈরী করতে কাজ করে যাব। আমি নির্বাচিত হতে পারলে গরীব-দু:খি, অসহায় ও নির্যাতিত মানুষের সেবা করে যাব। এলাকার মানুষের চাওয়া-পাওয়াকে আমি প্রাধান্য দেব কোন ভাবেই তাদের বঞ্চিত করবো না। প্রয়োজনে আমার নিজস্ব অর্থায়নে তাদের সাহায্য সহযোগিতা করবো। আমি দলীয় মনোনয়ন না পাই দল যদি অন্য কাউকে দলীয় মনোনয়ন দেয় আমি দলের সে সিদ্ধান্ত মাথা পেতে নিব। আমি দলের হয়ে তার পক্ষে কাজ করবো।শুকতাNK_Feb_2016_090ইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থী ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন হোসেন বলেন, আমি দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। আওয়ামীলীগের সাথে আমাদের পরিবার পুর্ব থেকেই জড়িত। আওয়ামীলীগের রাজনীতি ছাড়া আমি বা আমার পরিবার কিছুই বুঝিনা। আমার প্রানপ্রিয় নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিম ভাই যদি আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেন তাহলে আমি নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবো। আর
যদি দল আমাকে ছাড়া অন্য কাউকে দলীয় মনোনয়ন দেয় তাহলে আমি দলের হয়ে শেখ সেলিম ভাইয়ের নির্দেশে তার পক্ষে নির্বাচনি কাজ করবো। আমার পরিবার এলাকার সাধারন গরীব অসহায় মানুষদের কে বিভিন্ন সময় সাহায্যে সহযোগিতা করে এসেছি। আমি চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হতে পারলে আমার সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম ভাই ও আমাদের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ব্যাপারে আমার ইউনিয়নের পক্ষ থেকেNK_Feb_2016_088 সব রকমের ব্যবস্থা গ্রহন করবো। আমি এ ইউনিয়কে মডেল ইউনিয়ন করতে চাই।শুকতাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থী, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মরহুম এস এম শাহাবুদ্দিনের ছেলে ও মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগ কেন্দ্রিয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক জহির হাসান মারুফ বলেন, আমি দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। আমি এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হতে পারলে আমি আমার বাবার অসাপ্ত কাজগুলি সমাপ্ত করবো। আমার ইউনিয়নের রাস্তাঘাট নির্মান, ব্রিজ-কালভাট নির্মান, নতুন স্কুল নির্মান, খাল খননসহ বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক কাজ করবো। আমি নির্বাচিত হতে পারলে জনগনকে ভালবেসে তাদের কল্যানে ও ইউনিয়নকে ডিজিটাল ইউনিয়ন তৈরী করতে কাজ করে যাব। আমি নির্বাচিত হতে পারলে গরীব-দু:খি, অসহায় ও নির্যাতিত মানুষের সেবা করে যাব। এলাকার মানুষের চাওয়া-পাওয়াকে আমি প্রাধান্য দেব কোন ভাবেই তাদের বঞ্চিত করবো না। আমি দলীয় মনোনয়ন না পাই দল যদি অন্য কাউকে দলীয় মনোনয়ন দেয় আমি দলের সে সিদ্ধান্ত মাথা পেতে নিব। আমি দলের হয়ে তার পক্ষে কাজ করবো।