কালিয়ায় চার মাস পর ছাত্রের লাশ উত্তোলন

0
50

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলের কালিয়ায় মৃত্যুর চার মাস পর এলাহি মোল্যা (১৬) নামে এক কলেজ ছাত্রের লাশ কবর থেকে উত্তোলন করেছে পুলিশ। সে উপজেলার কলাবাড়িয়া গ্রামের রব্বানী মোল্যার ছেলে। গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র থাকাকালিন এলাহিকে হত্যা করা হয়। পিতার দায়েরকৃত হত্যা মামলায় ময়না তদন্তের জন্য পুলিশ সোমবার (২২ জুলাই) দুপুরে কলাবাড়িয়া কবরস্থান থেকে লাশ উত্তোলন করে।
গ্রাম্য কবরস্থান থেকে লাশ উত্তোলনের সময় উপস্থিত ছিলেন কালিয়ার সহকারি কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজ্যিষ্ট্রেট মো. নাজিবুল আলম, নড়াগাতি থানার ওসি মো. আলমগীর কবির ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই খান মাহাবুবুর রহমান। এদিকে ছাত্রের লাশ উত্তোলনের খবর ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের কয়েক’শ মানুষ জড়ো হয়।
হত্যা মামলার বিবরনে জানা যায়, গত ২৩ মার্চ বিকাল ৩ টার দিকে কলাবাড়িয়া গ্রামের মৃত ফরমান মোল্যার পুত্র জমির মোল্যাসহ কয়েকজন মিলে গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র এলাহিকে রাস্তা থেকে ডেকে যায়।এরপর গ্রামের ফিরোজা বেগমের ঘরে আটকে তাকে মারধর করে এবং বৈদ্যুতিক শক দিয়ে হত্যা করে। হত্যাকারীরা এ ঘটনাকে অসুস্থ্যতাজনিত মৃত্যু বলে চালিয়ে দিয়ে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করে।
এলাহির বাবা রব্বানী মোল্যা সে সময় নড়াইল আদালতের একটি মামলায় জেল হাজতে ছিলেন। জামিনে বেরিয়ে এসে গত ১৩ মে আদালতে তার ছেলে হত্যার অভিযোগ দায়ের করেন।আদালত অভিযোগটি উপজেলার নড়াগাতি থানায় মামলা হিসাবে নথী ভুক্ত করার আদেশ দিলে ওই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।
নড়াগাতি থানার ওসি মো. আলমগীর কবির বলেছেন, যেহেতু এলাহির মৃত্যুর ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে,তাই মৃত্যুর সঠিক কারন জানতে ময়না তদন্তের জন্য কবর থেকে লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য নড়াইল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here