পিস্তল উঁচিয়ে ছাত্রদের ওপর হুমকির ঘটনায় নড়াইলে মামলা

181

নড়াইল কণ্ঠ : অবশেষে প্রভাবশালী ঠিকাদার রেজাউল আলমসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার (১৭ জুন) বিকেলে নড়াইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র ভওয়াখালী এলাকার জুলমত খানের ছেলে জাকারিয়া খান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।
মামলার অন্য আসামীরা হলেন, ঠিকাদার রেজাউল আলমের ভাই কামরুল ও তার সহযোগি দুখু এবং ঠিকাদার মঈনুল্লাহ দুলু।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইলিয়াস হোসেন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, অস্ত্র আইনে চার জনের বিরুদ্ধ মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং ৬ তারিখ ১৭ জুন ১৯।
প্রসঙ্গত, ১৫ জুন সকালে শিক্ষক প্রদেশ কুমার মল্লিক তার নিজ বাসায় কোচিং সেন্টারে সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী সানজিনা এরিনা কোচিং এ পরীক্ষা দেয়। খাতা জমা দেয়ার পর খাতায় নাম না লেখার কারনে ওই ছাত্রীকে মারধোর করেন। এ ঘটনা বাড়িতে বললে ওই ছাত্রীর পিতা স্থানীয় ঠিকাদার মঈনুল্লাহ দুলু শিক্ষককে বাড়ি থেকে কলার ধরে টেনে হিচড়ে বের করে নিয়ে আসে এবং শারিরীভাবে লাঞ্চিত করে।
এ ঘটনা জানাজানি হলে ছাত্ররা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা শিক্ষককে লাঞ্চিতের ঘটনায় গত রবিবার (১৬ জুন) সকাল পৌনে ১০টার দিকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অবস্থান নিলে ঠিকাদার দুলুর সমর্থকরা প্রতিবাদকারী ছাত্রদের ওপর পিস্তল উঁচিয়ে ছত্রভঙ্গ করে ।
এসময় ছাত্ররা সেখান থেকে এসে বিদ্যালয়ের সামনে সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে ছাত্ররা রাস্তা ছেড়ে স্কুলের গেটে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।