যশোর পৌরসভার উন্মুক্ত বাজেট প্রকাশ, বর্ধিত করারোপ করা হয়নি

0
12

নড়াইল কণ্ঠ : যশোর পৗরসভার ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের উপর নাগরিক মতামত গ্রহণের লক্ষ্যে উন্মুক্ত বাজেট প্রকাশ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ( ১৩ জুন) সকালে যশোর পৌরসভায় বাজেট প্রকাশ অনুষ্ঠান হয়। এতে অর্থবছরের বাজেটে মোট আয় ১৩৫ কোটি ৫৮ লাখ ৫৩ হাজার ৩০ টাকা এবং মোট ব্যয় ১৩৫ কোটি ৫৫ হাজার ৫৩ লাখ ৬৭ টাকা এবং উদ্বৃত্ব দুই লাখ ৯৯ লাখ ৯৬৩ টাকা ধরা হয়েছে। ‘পৌরসভার আয়তন ও সীমানা আরো বৃদ্ধি করা হবে, বাজেটে কোন ধরণের বর্ধিত করারোপ করা হয়নি’।

এ সময় পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু বলেন, ‘পৌরসভার আয়তন ও সীমানা আরো বৃদ্ধি করা হবে, বাজেটে কোন ধরণের বর্ধিত করারোপ করা হয়নি’। আগামীতে নীল রতন ধর রোডে ডিভাইডার করে মাঝখানে গাছ লাাগনো হবে। এছাড়া মুজিব সড়ককে ৪ লেনে উন্নীত করা হবে। এ সকল কাজ অচিরেই শুরু হবে। লালধীঘিকে আরো দৃষ্টিনন্দন করে সকলের ব্যবহার উপযোগী করা কবে। এবারের বাজেটে শহর বর্জ্যমুক্তকরণ ও মশক নিধনের জন্য পর্যাপ্ত বরাদ্দ রাখা হয়েছে। দরিদ্র, এতিম ও অসহায় ছাত্র-ছাত্রীদের লেখাপড়ার জন্য পৌর তহবিল থেকে বৃত্তি ও আর্থিক অনুদান দেয়া হবে। খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চার জন্য বাজেট বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে। শহরের যেসকল এলাকায় এখনো সড়কবাতি নেই সেখানে সড়কবাতির জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

যশোর পৌরসভার আয়োজনে এবং সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), যশোর’র সহযোগিতায় পৌরসভা সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত উন্মুক্ত বাজেট প্রকাশ অনুষ্ঠানে জনগণের সাথে নিবিড়ভাবে মতবিনিময় করেন পৌরমেয়র মো: জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু ও কাউন্সিলরবৃন্দ। এতে সভাপতিত্ব করেন সনাক সভাপতি অধ্যাপক সুকুমার দাস। স্বাগত বক্তব্য দেন পৌরমেয়র মো: জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু। পৌরসভার ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পৌরমেয়রের পক্ষে উপস্থাপন করেন পৌর সচিব মো: আজমল হোসেন। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সনাক যশোরের স্থানীয় সরকার বিষয়ক উপ-কমিটির আহবায়ক ও দৈনিক গ্রামের কাগজের সম্পাদক মো: মবিনুল ইসলাম মবিন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার এ. এইচ. এম. আনিসুজ্জামান।

বক্তব্য দেন প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, প্রেসক্লাব যশোরের সাবেক সভাপতি একরামুদ্দৌলা, আব্দুর রাজ্জাক মিউনিসিপ্যাল কলেজের অধ্যক্ষ জিএম ইকবাল হোসেন, সদর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাড: সেতারা খাতুন, দৈনিক লোকসমাজের সম্পাদক আনোয়ারুল কবির নান্টু, দৈনিক প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি মনিরুল ইসলাম, তীর্যক যশোরের সেক্রেটারি দীপঙ্কর দাস রতন প্রমুখ।

এবারের বাজেটে বস্তি উন্নয়নের জন্য ৪ কোটি, মশক নিধনের জন্য ১২ লক্ষ এবং বৃক্ষরোপণ ও রক্ষণাবেক্ষনের জন্য ৫ লক্ষ টাকা বরাদ্দ বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

বাজেট উপস্থাপন শেষে ঘোষিত বাজেটের উপর মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত নাগরিকবৃন্দের পৌরসভার সার্বিক উন্নয়নে নানাবিধ পরামর্শ ও সুপারিশমালা তুলে ধরেন। পৌরমেয়র সেগুলি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here