প্রতিপক্ষের হামলায় নড়াইলে গৃহবধূ ও শিশুসহ আহত ৬

56

নড়াইল কণ্ঠ : প্রতিপক্ষের হামলায় নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ইতনা ইউনিয়নের কুমারডাঙ্গা গ্রামে গৃহবধূ ও শিশুসহ একই পরিবারের ছয়জন আহত হয়েছেন। গত রবিবার (২৬ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে গরুতে ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এদিকে আহতরা জানান, লোহাগড়ার কুমারডাঙ্গা গ্রামের জাহিদুল মোল্যা ও মিকা ফকিরের তিনটি গরু রোববার বিকেলে সাইফুল বিশ্বাসের জমির আমন ধান খেয়ে ফেলে। এ ঘটনায় সাইফুল বিশ্বাস ওই তিনটি গরু তাদের বাড়িতে ধরে আনেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন সাইফুলদের বাড়িতে এসে লাঠি ও রড দিয়ে তাদের ওপর হামলায় চালায়।
হামলায় গুরুতর আহত কুমারডাঙ্গা গ্রামের জামাল বিশ্বাসের দুই ছেলে সাইফুল বিশ্বাস (৩০) ও শাহিদুল বিশ্বাস (২২), তাদের ভাবী লিজা বেগমকে (২৮) নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে সাইফুলের মাথা ফেটে ও লিজার বাম হাত ভেঙ্গে গেছে। শাহিদুল চোখ, হাত ও পায়ে আঘাত পেয়েছেন। এছাড়া একই পরিবারের খোকা বিশ্বাসের ছেলে মামুন বিশ্বাস (২৫) এবং আশরাফ বিশ্বাসের দুই ছেলে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র রাব্বি ও পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র নাঈম বিশ্বাস প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন।
আহত সাইফুল বিশ্বাসসহ তাদের পরিবারের লোকজন জানান, কুমারডাঙ্গা গ্রামের মানিক মোল্যা, তার ভাই সবুজ মোল্যা, খাজা মোল্যা, মিকা ফকির, শিপন সিকদার, নাঈম সরদারসহ তাদের লোকজন লাঠি ও রড দিয়ে এ হামলা চালায়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন ভূক্তভোগীরা। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিপন সিকদারের মোবাইল ফোনে যোগােেযাগের চেষ্টা করা হলে তা বন্ধ পাওয়া গেছে। লোহাগড়া থানার ওসি প্রবীর কুমার বিশ্বাস জানান, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।