গোপালগঞ্জে গণমনসত্ত্বাতিক রোগে স্কুল ছাত্রী আক্রান্ত ১৭

123

নড়াইল কণ্ঠ : গোপালগঞ্জে গণ মনসত্ত্বাতিক রোগে আক্রান্ত হয়ে ১৭ স্কুল ছাত্রী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে ৯ জনকে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অসুস্থ অবস্থায় লিজা, পূজা, বিথি, অন্তি, খদিজা, জোসনা, সোমাইয়া, ডলি, রিমাকে গোপালগঞ্জ সদর হাসপালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আক্রান্তরা সবাই সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী। গতকাল সোমবার সকাল ১১ টার দিকে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বেদগ্রাম হাজী নাদের আলি ছাদের আলি উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর স্কুল ছুটি দিয়ে দেয়া হয়।

স্কুলের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী খাদিজা খানম তিথি ক্লাস চলাকালে মাথা ব্যথা, বমি বমি ভাবের কথা বলে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তার দেখা দেখি ক্লাশের আরো ১৭ ছাত্রী একই ধরনের উপসর্গ নিয়ে অসুস্থ হয়। তৎক্ষনাত স্কুলের শিক্ষকরা ছাত্রীদেরকে চিকিৎসার জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।
খবর পেয়ে সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা অসিত কুমার মল্লিকের নেতৃত্বে একটি মেডিকেল টিম আক্রান্ত স্কুলে গিয়ে অন্য শিক্ষার্থীরা যাতে অসুস্থ হয়ে না পড়ে তার জন্য প্রাথমিক চিকিৎসা শুরু করেন।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক খোন্দকার হাসিনা বলেন, প্রথমে খাদিজা নামের সপ্তম শ্রেণীর মেয়েটি নানা উপসর্গ নিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে এক এক করে আরো বেশ কয়েকজন অসুস্থ হয়। আমরা তাড়াতাড়ি ফায়ার সার্ভিসের এ্যামবুলেন্স খবর দেই এবং হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠাই। গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন মাষ্টার নিয়ামূল হুদা জানান, তারা খবর পেয়ে স্কুলের অসুস্থ ছাত্রীদেরকে নিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যান।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা অসিত কুমার মল্লিক বলেন, এটি কোন মারাত্মক রোগ নয়। এটিকে তিনি মাস হিস্টিরিয়া (গণ মনসত্ত্বাতিক) রোগ উল্লেখ করে বলেন, বিশ্রাম নিলে এ রোগ টিক হয়ে যাবে। সাধারণত এ বয়সের মেয়েরা মানসিক ভাবে দুর্বল থাকে আর এ কারণে এমনটি হতে পারে। এ রোগ নিয়ে আতংকিত হবার কিছু নাই বলে তিনি জানান।