ব্রাহ্মণডাঙ্গায় ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা ও গ্রামীণ মেলা

0
18
Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

নড়াইল কণ্ঠ : বর্ষবরণ উপলক্ষে নড়াইলের ব্রাহ্মণডাঙ্গায় অনুষ্ঠিত হলো আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত সোমবার (১৬ এপ্রিল) বিকেলে ব্রাহ্মণডাঙ্গা বৈশাখী মেলা উদযাপন কমিটির আয়োজনে তিনদিনব্যাপী মেলার শেষদিনে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
প্রতিযোগিতায় যশোর, মাগুরা, ফরিদপুর ও স্বাগতিক নড়াইলের বিভিন্ন এলাকা থেকে ২২টি ঘোড়া অংশগ্রহণ করে। দুই কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে প্রতিযোগিতায় প্রথম হয় যশোর বাঘারপাড়া উপজেলার দহখোলা গ্রামের মো: বাপ্পী মোল্যার ঘোড়া, দ্বিতীয় হয় লোহাগড়া উপজেলার আমডাঙ্গা গ্রামের ইউনুস কারীর ঘোড়া ও তৃতীয় হয় যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার ধলগ্রামের জাবেদ সরদারের ঘোড়া।
বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার হিসেবে ছয় হাজার, চার হাজার, তিন হাজার ও দুই হাজার টাকা করে পুরস্কার প্রদান করা হয়।
এছাড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারি প্রতিটি ঘোড়ার মালিককে এক হাজার টাকা করে শান্তনা পুরস্কার দেওয়া হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা। মেলাকে ঘিরে পাঁচ শতাধিক দোকানে ছিল জমজমাট বেচাকেনা। হাজার হাজার দর্শক প্রতিযোগিতা উপভোগ করেন।
প্রতি বছর এদিনের জন্য অপেক্ষায় থাকেন হাজার হাজার দর্শক। বর্ষবরণ ও ঘোড়াদৌড় প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে এখানে গ্রামিণ মেলাও বসে।
ঢোলা, ডালা, ধামা, কুলা, আম কাটার ছুরি, বিভিন্ন সাজের মাটির তৈরী পুতুল, শিশুদের বিনোদনের বিভিন্ন খেলা-ধুলার সরঞ্জামাদিসহ প্রায় পাঁচশতাধিক দোকানে জমজমাট বেচাকেনা হয় এ মেলায়।
উল্লেখ্য, খাজনা আদায়ে সুষ্ঠুতা প্রণয়নের লক্ষ্যে মুঘল সম্রাট আকবর বাংলা সনের প্রবর্তন করেন। সম্রাট আকবরের সময়কাল থেকেই পহেলা বৈশাখ উদ্যাপন শুরু হয়। এলাকার মুরব্বীদের মতে এ সময় থেকেই লোহাগড়ার ব্রাহ্মণডাঙ্গা এলাকায় বর্ষবরণের মধ্যদিয়ে প্রতিবছর ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা ও গ্রামীণ মেলার আয়োজন করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here