নড়াইল-১ আসনে আ’মীলীগ নেতার ওপর হামলা, বিএনপি’র অফিস ভাঙ্গচুরের অভিযোগ

66

নড়াইল কণ্ঠ : কালিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা খান শামীমুর রহমানের উপর বিএনপি’র কর্মীরা হামলা করে আহত করেছে। চেয়ারম্যানকে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার পর পরই বিএনপি’র নির্বাচনী অফিস ভাঙ্গচুরের অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানাগেছে।
নড়াগাতি থানা যুবলীগের আহ্বায়ক ও জেলা পরিষদ সদস্য হাদিউজ্জামান অভিযোগ করেন, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে কালিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা খান শামীমুর রহমান ও তার লোকজন অসুস্থ এক নেতাকে দেখতে যাচ্ছিলেন। খাশিয়াল বাজারে বিএনপি’র প্রার্থী জাহাঙ্গীর বিশ্বাসের লোকজন তাদের বাধা দেয় এবং তাৎক্ষনিক তারা উপজেলা চেয়ারম্যানের মাথায় আঘাত করে। পরে তাকে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
এদিকে নড়াইল-১ আসনের বিএনপি প্রার্থী বিশ্বাস জাহাঙ্গীর আলম অভিযোগ করেন, “খান শামীমুর খাশিয়াল বাজারে এসে বিএনপির নির্বাচনী অফিস বন্ধ করতে বলেন। এ সময় বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে তার বাগবিতন্ডা হয়। আর খান শামীমুর সামান্য আহত হন। এরপর দুর্বৃত্তরা আমার কালিয়া বাজারের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করে।”
এদিকে নড়াগাতী থানার ওসি আলমগীর বলে জানান খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।
তিনি বলেন, “খাশিয়াল বাজারে বিএনপির নেতাকর্মীরা কালিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ওপর হামলা চালিয়েছে।”
আর কালিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেছেন, “কালিয়ায় অবস্থিত বিশ্বাস জাহাঙ্গীর আলমের নির্বাচনী অফিস ভাংচুরের কোনো ঘটনা ঘটেনি। তবে ঘরের মধ্যে থাকা কিছু কাগজপত্র এনে কে বা কারা আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।”