নড়াইলের দু’আসনে ১৬ বৈধ প্রার্থী, ৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল

0
15
Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

নড়াইল কণ্ঠ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-১ ও ২ আসনের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই সম্পূন্ন হয়েছে। নড়াইল-১ (কালিয়া উপজেলা ও সদরের একাংশ) আসন থেকে ৮ জন এবং নড়াইল-২ (সদর ও লোহাগড়া) আসন থেকে ৮জন প্রাথীর মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে। রবিবার (০২ ডিসেম্বর) সকাল ১০টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত যাচাই-বাছাই শেষে বিকাল ৫টার সময় জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে সকলের উপস্থিতিতে জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক আনজুমান মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের কাজ সম্পন্ন করেন।

নড়াইল-১ আসনে বৈধ ৮জন প্রার্থীর মধ্যে রয়েছে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী বিএম কবিরুল হক মুক্তি ও শরীফ নূরুল আম্বিয়া, বিএনপি’র বিশ্বাস জাহাঙ্গীর আলম (নড়াইল জেলা বিএনপি’র সভাপতি) একই দলের এস কে এম সাজ্জাদ হোসেন এবং এসএম সাজ্জাদ, জাতীয় পার্টি থেকে মো: মিল্টন মোল্যা, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো: খবির উদ্দিন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি’র মো: মুনসুরুল।
নড়াইল-১ আসনে যাদের প্রার্থীতা বাতিল হয়েছে তারা হলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী সিকদার মোঃ শাহাদত হোসেন দুলু, ওমর আলী ও শেখ মিজানুর রহমান। এক শতাংশ ভোটারদের স্বাক্ষরসহ কাগজপত্র জমা দিতে না পারায় মনোনয়ন বাতিল হয়।এদের মনোনয়ন স্থগিত রাখা হয়েছিল।

নড়াইল-২ আসনে বৈধ ৮জন প্রার্থীর মধ্যে রয়েছে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা, ২০ দলীয় জোটের ধানের শীষ প্রতীকে (শরীক দল এনপিপি’র চেয়ারম্যান) এ জেড এম ড. ফরিদুজাজামান ফরহাদ ও শরীফ কাসাফুরদ্দোজা কাফী, ইসলামী ঐক্যজোট বাংলাদেশের মো: মাহাবুবুর রহমান, জাতীয় পার্টির খন্দকার ফায়েকুজ্জামান, ইসলামী আন্দোলনের এসএম নাসির উদ্দিন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির বর্তমান এমপি শেখ হাফিজুর রহমান, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো: মনিরুল ইসলাম।
এ আসন থেকে ৫ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। যাদের মনোনয়নপত্র করা হয় তারা হলেন, ২০ দলীয় জোটের ধানের শীষ প্রতীকে সাবেক এমপি মো: শহিদুল ইসলামের দুদকের একটি মামলায় ১০ বছরের সাজা, বিদেশ থাকা এবং স্বাক্ষরসহ কাগজপত্র সঠিক না হওয়ায় তার মনোনয়ন বাতিল ঘোষণা করা হয়। স্বতন্ত্র মুফতি মোহাম্দ তলহা, মোঃ জামাল উদ্দীন ও মনির হুসাইন নিয়মানুযায়ী এক শতাংশ ভোটারদের স্বাক্ষরসহ কাগজপত্র জমা দিতে না পারায় মনোনয়ন বাতিল হয়। এছাড়া ঋণের কারণে জাসদ (রব) প্রার্থী ফকির শওকত আলীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।

উল্লেখ্য, নড়াইল-১ আসনে ১২জন এবং নড়াইল-২ আসনে ১৩ জনসহ মোট ২৪ জন প্রার্থী মনোনয়ন দাখিল করেছিলেন। এর মধ্যে জাসদ (রব) এর ফকির শওকত আলী উভয় দুই আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

যাচাই-বাছাইকালে নড়াইলের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজী মাহবুবুর রশীদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, নড়াইল-২ আসনের বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থী অ্যাডভোকেট শেখ হাফিজুর রহমান, নড়াইল-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শরীফ নুরুল আম্বিয়া, বিএনপির প্রার্থী বিশ্বাস জাহাঙ্গীর আলমসহ অন্যান্য প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা জানান, রিটার্নিং অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের মাধ্যমে এসব প্রার্থীগণ মনোনয়নপত্র দাখিল হয়। আজ ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই করা হয় এবং প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৯ ডিসেম্বর এবং ৩০ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here