নির্বাচনের এক সপ্তাহ আগে সেনা মোতাযয়েন : ইসি সচিব

30

নড়াইল কণ্ঠ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।
বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে আগারগাঁওয়ে সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তাদের দ্বিতীয় পর্যায়ের (অন্তত ২০০ ইউএনও) ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান।
ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘নির্বাচনের এক সপ্তাহ অথবা ১০ দিন পূর্বে সেনাবাহিনী মোতায়েন থাকবে, বিজিবি মোতায়েন হবে। সুতরাং তাদের থাকার ব্যবস্থা রাখা ও প্রশিক্ষণ কোথায় দেওয়া হবে, নির্বাচনের মালামাল কোথা থেকে সরবরাহ করা হবে, কোথা থেকে ফলাফল ঘোষণা করা হবে সেগুলো এখন থেকে মাথায় রেখে কাজ শুরু করতে হবে।’
এর আগে আওয়ামী লীগের দাবি ছিল, স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে সেনাবাহিনীকে রাখতে। আর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে দাবি ছিল, সেনাবাহিনীকে নির্বাহী ক্ষমতা (ম্যাজিস্ট্রেসি) দিয়ে মোতায়েন করতে হবে।
এরকম বাস্তবতায় এই প্রথম সেনাবাহিনী মোতায়েন করার ঘোষণা দিলেন ইসি সচিব।
রাজধানীর নয়াপল্টনে ১৪ নভেম্বর, বুধবার দুপুর ১টার পরে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
এ বিষয়ে ইসি সচিব বলেন, ‘মনোনয়ন প্রার্থীরা যখন ফরম জমা দিতে আসবে তখন যেন কোনো শোডাউন করতে না পারে সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে। গতকাল নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ে একটি অনাকাঙিক্ষত ঘটনা ঘটেছে শুধুমাত্র শোডাউনকে কেন্দ্র করে।’
সে সময় কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘এবার নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হলে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মুখ দেখানো যাবে না।’
যদিও এবারের নির্বাচন পর্যবেক্ষণ না করার কথা জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।
এদিকে সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়ে মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘যদি কেউ নির্বাচনকে ভন্ডুল করতে চায়, তবে আইনের মধ্য থেকে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেবেন আপনারা।’
অনুষ্ঠানে ইসি সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ, ইসি মাহবুব তালুকদার ছাড়াও অতিরিক্ত সচিব মো. মোখলেছুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।