ইনক্রিমেন্ট ও বৈশাখী ভাতা প্রদানের ঘোষণায় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে নড়াইলে শিক্ষকদের আনন্দ মিছিল

42

নড়াইল কণ্ঠ : বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিওভূক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের পাঁচ শতাংশ ইনক্রিমেন্ট ও বৈশাখী ভাতা প্রদানের ঘোষণায় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ মিছিল ও সমাবেশ করেছে জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা।
মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) বেলা ১১টায় বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি নড়াইল জেলা শাখার উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালিত হয়।
নড়াইল ভিক্টোরিয়া কলেজিয়েট স্কুল (ভিসি স্কুল) চত্বর থেকে শিক্ষকরা আনন্দ মিছির বের করে। মিছিলটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমী চত্বরে গিয়ে শেষ হয়।
এ সময় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোঃ মহিদুর রহমান মুরাদ, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ধ্রুব কুমার ভদ্র, নড়াইল ভিসি স্কুলের প্রধান শিক্ষক নিমাই চন্দ্র পাল, লোহাগড়া উপজেলা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমিনুর রহমান, গোবরা পার্বতী বিদ্যাপীঠের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রশীদ, নাকসী এবিএস মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ হায়দার আলী, বল্লারটোপ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ফরিদুল ইসলাম, গুয়াখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মজিদ সরদার, আমডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আসাদুজ্জামান প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, বাংলাদশ আজ মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে সামনের দিকে এগিয়ে চলেছে। শিক্ষক সমাজের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল আজ শিক্ষার হার বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষক সমাজ দীর্ঘদিন ধরে অন্যান্য চাকুরীজীবিদের তুলনায় বঞ্চিত ছিল। দাবি দাওয়া তোলার পর প্রধানমন্ত্রী শিক্ষকদের ইনক্রিমেন্ট ও বৈশাখী ভাতা প্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ইশতেহারে শিক্ষকদের জাতীয়করণের জন্য অর্ন্তভূক্তির ঘোষণার দাবি জানান শিক্ষক নেতারা।
কর্মসূচিতে জেলার তিনটি উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কয়েকশত শিক্ষক-কর্মচারী অংশগ্রহণ করেন।