চালিতাতলা সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গুনিজন সংবর্ধনা ও শিক্ষাবৃত্তি প্রদান

46

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইল সদর উপজেলার চালিতাতলা সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গুণিজন সংবর্ধনা ও কৃতি শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

শনিবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে সম্মিলনী বন্ধু কল্যাণ ট্রাষ্টের উদ্যোগে ৬১জন কৃতি শিক্ষার্থী ও ২০জন গুণিজনকে সংবর্ধনা দেয়া হয়।
সকাল সাড়ে ১০টায় এ উপলক্ষে বিদ্যালয় চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি স্থানীয় চালিতাতলা বাজার সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একইস্থানে এসে শেষ হয়।

পরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও দিনব্যাপী এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন উদ্বোধক চন্ডিবরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আজিজুর রহমান ভূঁইয়া।

গুনিজন সংবর্ধনা, শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে সম্মিলনী বন্ধু কল্যাণ ট্রাষ্টের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন পান্নুর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, প্রধান অতিথি নড়াইলের নবাগত জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা, বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম, লোহাগড়া উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ ফয়জুল আমীর লিটু, বাংলাদেশ ট্যাক্সেস বার এসোসিয়েশন ঢাকা এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট সৈয়দ ইকবাল মোস্তফা, বাংলাদেশ মহিলা সমিতির যুগ্মসাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট ফারহানা রেজা পিউলি, চালিতাতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ধ্রুব কুমার ভদ্র, প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক নিখিল রঞ্জন সাহা, প্রলয় কান্তি সমাদ্দার, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোঃ ইউনুস মোল্যা, নোয়াগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম কালু, সাবেক চেয়ারম্যান নূরুজ্জামান নূরনবী, লোহাগড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস, এম হায়াতুর রহমান, রতডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সাখাওয়াত হোসেন প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন সম্মিলনী বন্ধু কল্রাণ ট্রাষ্টের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষ চন্দ্রশীল।

আলোচনা সভা শেষে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের মেধাবী ৬১ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে ৫০০ টাকা করে শিক্ষাবৃত্তি এবং ও ২০ জন গুণিজনকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

আয়োজক কমিটির সদস্য রেজাউল ইসলাম, শাহাবুদ্দীন শেখ, সাইফুল ইসলামসহ অন্যান্যরা জানান, সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৯৮৪, ৮৫ ও ৮৬ সালের এসএসসি ব্যাচের শিক্ষার্থীদের নিয়ে গঠিত চালিতাতলা সম্মিলনী বন্ধু কল্যাণ ট্রাষ্ট। এই ট্রাষ্টের মাধ্যমে এলাকার শিক্ষার মান্নোনয়নে উদ্দীপনা সৃষ্টিতে শিক্ষাবৃত্তি চালুর পাশাপাশি এলাকার গুণিজনদের সম্মান জানাতেই এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানকে ঘিরে বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের মিলনমেলায় রূপ নেয়।

অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ, বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।