২৮ বছর পর ইটালির শহরে প্রথম শিশুর জন্ম

126

নড়াইল কণ্ঠ : গত ২৮ বছরের মধ্যে এই প্রথম একটি শিশু জন্ম নিয়েছে ইটালির এক শহরে। উত্তর ইটালির ওসটানা শহর ১৯৮০ সালের পর এই প্রথম এক নবজাতকের মুখ দেখলো। পাবলো নামের এই শিশুর জন্মের পর শহরের জনসংখ্যা একজন বেড়ে দাঁড়ালো ৮৫ জনে। গত একশো বছর ধরেই ওসটানা শহরের জনসংখ্যা কমছিল।

শহরের মেয়র গিয়াকোমো লোমবার্ডো জানান, গত শতকের শুরুতে ওসটানার জনসংখ্যা ছিল প্রায় এক হাজার। কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে শহরের জনসংখ্যা কমতে থাকে।

ইটালির ‘লা স্টাম্পা’ পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মেয়র বলেন, ১৯৭৫ সাল থেকে শহরের জনসংখ্যা দ্রুত কমতে থাকে। ১৯৭৬ সাল থেকে ১৯৮৭ সালের মধ্যে এই শহরে জন্ম নেয় মাত্র ১৭টি শিশু। পাবলোর আগে সেই শেষ কোন শিশুর জন্ম দেখেছে ওসটানা।

নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরির মাধ্যমে শহরের জনসংখ্যা বাড়ানোর চেষ্টা করছেন মেয়র। পাবলোর বাবা জোসে এবং মা সিলভিয়াও আসলে এই শহর ছেড়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করছিলেন। কিন্তু কাছাকাছি জায়গায় একটা কাজের প্রস্তাব পাওয়ার পর তারা থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।
ইটালির সব ছোট শহরেই এই একই গল্প শোনা যাবে। তরুণরা কাজের সন্ধানে ছোট শহর ছেড়ে পাড়ি জমাচ্ছে বড় শহরে। ফলে জনশূণ্য হয়ে পড়ছে ছোট ছোট শহরগুলো।