গেঁটেবাতে ভুগছেন খালেদা ,ডায়াবেটিসও অনিয়ন্ত্রিত

29

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গেঁটেবাতজনিত সমস্যায় ভুগছেন। তার ডায়াবেটিসসহ বেশকিছু রোগ অনিয়ন্ত্রিত অবস্থায় আছে। এসব রোগ নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। এরপর তার মূল চিকিৎসা শুরু হবে। তাই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় খালেদা জিয়ার চিকিৎসা কত দিন চলবে তা নিদির্ষ্ট করে এখনই বলতে পারছে না মেডিকেল বোর্ড ।
সোমবার দুপুরে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের্র চারজন সদস্য এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা সম্পকের্ জানাতেই এই ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়।
রোববার রাতে বোর্ডের একজন সদস্য অধ্যাপক সৈয়দ আতিকুল হক বোর্ডের
প্রতিনিধি হিসেবে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন। সৈয়দ আতিকুল হক সোমবার সাংবাদিকদের বলেন, খালেদা জিয়ার সমস্যাটা মূলত গেঁটেবাতজনিত।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেডিকেল বোডের্র প্রধান অধ্যাপক আবদুল জলিল চৌধুরী বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে হাইকোটের্র নিদের্শনা বোর্ডের
সদস্যরা পড়েছেন। বোর্ড গঠনে হাইকোটের্র নিদের্শনার কোনো ব্যর্ত্যয় ঘটেনি বলেই তাদের ধারণা।
গত ৬ অক্টোবর আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। শনিবার বিকাল পৌনে ৪টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) নেয়া হয় খালেদা জিয়াকে।
বিএসএমএমইউর পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, ‘খালেদা জিয়া হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আমরা হাইকোর্টের্ একটি নির্দেশনা পেয়েছি। সে অনুযায়ী মেডিকেল বোর্ডও গঠন করা হয়েছে। তার সঙ্গে আমাদের দেখা হয়েছে ও কুশল বিনিময় হয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার হাইকোটের্র দেয়া নির্দেশনা অনুযায়ী, খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য মোটা পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।
ইউনাইটেড বা বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা নিতে নির্দেমনা চেয়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়া রিট করেন। আবেদনে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য একটি বিশেষ বোডর্ গঠন করার নিদের্শনাসহ তার চিকিৎসাসেবা সংক্রান্ত যাবতীয় নথি দাখিলের নিদের্শনা চাওয়া হয়। গত ১৫ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত পঁাচ সদস্যের মেডিকেল বোডর্ পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে গিয়ে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন। পরে গত ৪ অক্টোবর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে ভতির্ করতে ও চিকিৎসাসেবা শুরু করতে পঁাচ সদস্যের একটি বোডর্ গঠন করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডাদেশ দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫। এরপর থেকে খালেদা জিয়া নাজিমুদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন। ওই মামলায় বিচারিক আদালতের রায়ের পঁাচ মাসের মাথায় ১২ জুলাই আপিলের ওপর শুনানি শুরু হয়।