ইসলাম প্রচার ও প্রসার ও চর্চা : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

0
118
Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ইসলামের প্রচার, প্রসার এবং চর্চায় বাংলাদেশের জন্মলগ্ন থেকেই কাজ করে আসছে।

এক নজরে বাংলাদেশে ইসলাম প্রচারে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অবদান জেনে নেওয়া যাক-
– কওমী শিক্ষা ব্যবস্থার সরকারী স্বীকৃতি। কওমী সনদে সরকারি এবং বেসরকারী চাকরি সুযোগ।
– বিশ্ব ইজতেমার জন্য টঙ্গিতে সরকারী জায়গা বরাদ্দ ।
– আল-কুরআনের ডিজিটালাইজেশন।
– ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ।
– দেশের ৩১টি কামিল মাদ্রাসায় অনার্স কোর্স চালুকরণ।
– যোগ্য আলেমদের ফতোয়া প্রদানে মহামান্য আদালতের ঐতিহাসিক রায়।
– জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের সৌন্দর্য বর্ধন ও সম্প্রসারণ। সুউচ্চ মিনার নির্মাণ। দক্ষিণ প্রান্ত সম্প্রসারণ। মহিলাদের নামায কক্ষ ও স্থান সম্প্রসারণ।
– ইসলামিক ফাউন্ডেশন লাইব্রেরী ভবন নির্মাণ।
– বাংলাদেশে ইসলামের প্রচার বৃদ্ধির লক্ষ্যে বাংলাদেশ ও সৌদি আরব সরকারের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর।
– হজ্জ ব্যবস্থাপনায় আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার।
– জেদ্দা হজ্জ টার্মিনালে ‘বাংলাদেশ প্লাজা’ স্থাপন।
– আশকোণা হজ্জ ক্যাম্পের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি।
– রেকর্ড সংখ্যক হজ্জ যাত্রী প্রেরণ।
– হজ্জ ব্যবস্থাপনায় সৌদি সরকারের স্বীকৃতি।
– মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমে আলেম-ওলামাদের কর্মসংস্থান ও বেতন ভাতা বৃদ্ধি।
– শিশু ও গণশিক্ষা এবং কুরআন শিক্ষা কার্যক্রমে মহিলাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা গ্রহণ।
– জাতীয় শিক্ষা নীতিতে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমকে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার অংশ হিসেবে অন্তর্ভূক্তিকরণ।
– কওমী মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের সনদের সরকারী স্বীকৃতির জন্য আলাদা কমিশন গঠন।
– ১,০০০ টি বেসরকারী মাদ্রাসার একাডেমিক ভবন নির্মাণ।
– প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ধর্মীয় শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন।
– ইমাম প্রশিক্ষণ কার্যক্রম।
– ইমাম-মুয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন।
– ইসলামী প্রকাশনা প্রকল্প বাস্তবায়ন।
– ইসলামিক মিশন কেন্দ্রের মাধ্যমে চিকিৎসা-সেবা প্রদানের ব্যবস্থা।
– মসজিদ পাঠাগার স্থাপন প্রকল্প বাস্তবায়ন।
– ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম ডিজিটালে রূপান্তর।
– জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস প্রতিরোধ ও সামাজিক সমস্যা সমাধানে কর্মসূচী বাস্তবায়ন।
– মসজিদ ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের জন্য আর্থিক অনুদান প্রদান।
– চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক আন্দরকিল্লাহ শাহী জামে মসজিদের উন্নয়নে বিশাল অংকের বাজেট অনুমোদন।
– চট্টগ্রাম জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদ কমপ্লেক্স ফাউন্ডেশনের অনুকূলে ন্যস্তকরণ।
– পবিত্র রমযানে মসজিদে মসজিদে কুরআন শিক্ষা প্রদানের ব্যবস্থা।
– সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে গণ সচেতনতামূলক কর্মসূচী গ্রহণ।
– আন্তর্জাতিক হিফজ, ক্বিরাত ও তাফসীর প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশী প্রতিনিধি প্রেরণ।
– জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে অনুমোদিত মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন মডেলে ইসলামী মূল্যবোধের প্রতিফলন।
– ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম উপজেলা পর্যায়ে সম্প্রসারণের ঘোষণা ও বাস্তবায়ন।
– প্রতি জেলা ও উপজেলা সদরে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের আদলে মসজিদ নির্মাণের নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও উপজেলা পর্যায়ে একটি করে মসজিদ সরকারীকরণ।
– একটি গ্রাম একটি মক্তব চালু করার নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ।

তথ্য সূত্র : banglaramra.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here