কেন্দ্রীয় কৃষক সম্মেলন উপলক্ষে নড়াইলে সংবাদ সম্মেলন

128

NK_January_2016_116নড়াইল কণ্ঠ : ৩০-৩১ জানুয়ারি দু’দিনব্যাপি ৬ষ্ঠ জাতীয় কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় সম্মেলন উপলক্ষে নড়াইলে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারী) দুপুর সাড়ে ১২টা লোহাগড়ার ১৪ দলের অফিসে জাতীয় কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কৃষক নেতা নুরুল হাসানের সভাপতিত্বে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জাতীয় কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কৃষক নেতা আমিনুল ইসলাম গোলাপ। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি মাহামুল হাসান মানিক, সম্মেলন বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক শেখ হাফিজুর রহমান-এমপি, নড়াইল জেলা কমিটির সভাপতি মনিউর রহমান জিকু প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা জানান, ৩০ জানুয়ারি নড়াইলের লোহাগড়ার লক্ষ্মীপাশার মোল্যার মাঠে সম্মেলন উদ্বোধন হবে। এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাতীয় কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কৃষক নেতা নুরুল হাসানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রী কমরেড রাশেদ খান মেনন-এমপি, উদ্বোধক হিসেবে জাতীয় কৃষক সমিতির সভাপতি ফজলে হোসেন বাদশা-এমপি, প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় কৃষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম গোলাপ, বিশেষ অতিথি গবেষক, প্রাবন্ধিক ও কলাম লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ, বাংলাদেশ খেতমজুর ইউনিয়নের সভাপতি কমরেড বিমল বিশ্বাস,  কৃষক নেতা আনিসুর রহমান মল্লিক, বিশেষ বক্তা কৃষক নেতা মাহামুদ হাসান মানিক ও শেখ হাফিজুর রহমান-এমপি। সভা পরিচালনা করবেন কৃষক নেতা মনোজ সাহা।

সম্মেলনে সারাদেশ থেকে ৫০টি জেলার ১০ হাজার কৃষকের সমাবেত হবে। সারা দেশ থেকে  এ সম্মেলনে প্রায় ৭শত কাউন্সিলর ও ডেলিগেট অংশগ্রহণ করবেন। বক্তারা আরো জানান  সারা দেশে ৬০ থেকে ৭০ হাজার সদস্য সংগ্রহ হয়েছে।

সভাপতি কৃষক নেতা নুরুল হাসান বলেন, এ  সম্মেলন কিংবদন্তী কৃষক নেতা অমল সেনকে স্মরণীয় ও বরণীয় করতে, মজলুম জনতো মওলানা ভাসানী, তে-ভাগা আন্দোলনের সফল নেতা ও রূপকার কমরেড অমল সেন, সর্বভারতীয় কৃষক নেতা  নগেন সরকার, হাজং বিদ্রোহের মহান নায়ক মনি সিং, ভাষা সৈনিক ও কৃষক নেতা আব্দুল মতিন এবং আশির দশকে লোহাগড়ার কৃষক আন্দোলনের শহীদ হাফিজার মোল্যার স্মৃতিরক্ষার্থে তোরণে সুসজ্জিত করতে চাই লোহাগড়া লক্ষ্মীপাশার কৃষক এলাকা সমূহ। এ সম্মেলন থেকে আমরা ঘোষণা করতে চাই- কৃষক আন্দোলন ও সংগ্রামকে জোরদার করার লক্ষ্যে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়কে নিশ্চিত করতে হবে এবং এ সকল পরিষদে কৃষকদের প্রতিনিধিত্ব প্রতিষ্ঠার জন্য সর্বশক্তি নিয়ে মাঠে নামতে হবে।

তিনি আরো বলেন, সা¤্রারাজ্যবাদ, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতাকে প্রতিরোধের লক্ষ্য নিয়ে এ সম্মেলন থেকে ৫দফা দাবি তোলা হবে। দাবি গুলির মধ্যে থাকছে- খোদ কৃষকের হাতে জমি দাও ও ভুমি সংস্কার কর ; কৃষকের স্বার্থে বাজার ব্যবস্থা গড়ে তোল ; কৃষি পণ্যের লাভজনক মূল্য নিশ্চিত কর ; ভুমি ও কৃষি আদালত গঠন কর ; কৃষক খেতমজুরদের স্বার্থে গ্রামাঞ্চলে পূর্ণ রেশনিং ব্যব¯া’ গড়ে তোল। এ সকল দাবীর ভিত্তিতে গ্রামে গ্রামে কৃষক সংগঠন ও কার্যকর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

সংবাদ আমিনুল ইসলাম গোলাপ বলেন, সম্মেলনে মওলানা ভাসানী’র লালটুপি মস্তকে ধারন করে, বিপ্লবী আদর্শ ও কৃষক আন্দোলনের প্রতীক মহান নগেন সরকার ও কিংবদন্তী কৃষক নেতা কমরেড অমল সেন এবং হাজং বিদ্রোহের মহা নায়ক মনি সিংহ এর লাল পতাকা হাতে নিয়ে ভাষা সৈনিক আব্দুল মতিন ও আহমদ রফিকের ভাষা আন্দোলনের মহান এতিহ্যবাহী লালঝান্ডা উত্তোলন করে ঝাপিয়ে পড়ে সা¤্রারাজ্যবাদ বিরোধী, অসাম্প্রদায়িক ও ধর্মনিরপেক্ষ, ভুমিদস্যু-জোরদার-মহাজন গোষ্টি ও লুটেরা ধনিক-বণিক বিরোধী কৃষক-খেতমজুর-মেহনতী-শ্রমজীবী জনগণের স্বার্থরক্ষাকারী বাংলাদেশ গড়ে তুলি।
একই সাথে “৭১ সালের যুদ্ধাপরাধীদের দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তির দাবিতে স্বোচ্চার হয়ে জাতীয় কৃষক সমিতির সম্মেলনে অংশগ্রহণ করি। এই সম্মেলনের মধ্যদিয়ে শপথ নেই সাম্্রারাজ্যবাদ, স্বৈরাচার, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িক শক্তিকে চিরতরে প্রতিহত ও নির্মূল করার আহবান জানান।