ঝিনাইদহের নবাগত এসপি হাসানুজ্জামান জঙ্গিবাদ সন্ত্রাস মাদককে জিরো টলারেন্স

33

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : নতুন পুলিশ সুপার হিসেবে ঝিনাইদহে দ্বায়িত্ব গ্রহণ করেছেন হাসানুজ্জামান। সম্প্রতি বিদায়ী পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানের কাছ থেকে তিনি দ্বায়িত্ব বুঝে নেন। দ্বায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে জেলাব্যাপী আশার আলো সঞ্চার হয়েছে নবাগত পুলিশ সুপারকে নিয়ে। ইতিমধ্যে তার কর্মতৎপরতা শুরু হয়েছে জেলাব্যাপী।

পুলিশ হেডকোয়াটার্সের এআইজি থেকে বদলি হয়ে ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি পেয়ে ২২তম বিসিএসে ২০০৩ সালের ১০ ডিসেম্বর তিনি পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। এরপর ঠাকুরগাঁও র‌্যাব-৪ সহকারী পুলিশ সুপার, লালমনিরহাট, নোয়াখালীতে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার, ঝিনাইদহে ও লক্ষীপুর জেলায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদে সুনামের সাথে দ্বায়িত্ব পালন করেছেন। নড়াইল জেলার বাসিন্দা চৌকস এই কর্মকর্তা দুইবার জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নিয়েছেন। কর্মজীবনে সদা প্রাণচঞ্চল এই ব্যক্তিকে পুলিশ সুপার হিসেবে পেয়ে ঝিনাইদহের পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যদের মাঝে অন্য ধরণের আমেজ ফিরে এসেছে।

নিজের অফিসের সম্মেলনকক্ষে সংবাদকর্মীদের সাথ আলোচনাকালে হাসানুজ্জামান জানান, পুািলশের প্রতি মানুষের আস্থা এখনও বিদ্যমান আছে বলেই পুলিশকে বিপদে-আপদে মানুষ সকাছে পায়। যেহেতু পুলিশ জনগণের সবচেয়ে নিকটতম আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা, তাদের প্রতি বেশি আস্থা যাতে আপামর জনসাধারন অর্জণ করতে পারে সেজন্যপ্রতিটি পটুলিশ সদস্যতে আন্তরিক ও তৎপর হতে হবে। তিনি একসময়ের জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসী ও মাদক অঞ্চল বলে খ্যাত ঝিনাইদহের বর্তমাণ আইন-শৃঙ্খলায় সন্তোষ প্রকাশ করে ঝিনাইদহকে সম্পূর্ণরুপে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত জেলা গঠনে সবার সহায়তা কামনা করেন।